টলিউড

নিখিলের সঙ্গে সহবাসে থাকাকালীন রোজ বালিশে মুখ গুঁজে কাঁদতেন নুসরত জাহান! নুসরতের পোস্টে কীসের ইঙ্গিত?

গত বুধবার রাতেই সকলের সামনে এসেছে নুসরাত জাহানের সন্তানের পিতৃ পরিচয়ের আসল সত্যি। আর এই খবর সামনে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়ে গিয়েছে তুমুল জল্পনা। নেটিজেনরা যেনো এইদিনটির জন্য অপেক্ষা করে ছিলেন। কলকাতা পৌরসভার অনলাইন ফর্ম থেকেই এই তথ্য ফাঁস হয়েছে। যদিও এই বিষয় নিয়ে নুসরাত বা যশ কেউ এখনো সরাসরি মুখ খোলেননি। দুজনেই আপাতত এই বিষয়টি এড়িয়ে চলছেন।

নুসরাত জাহান বৃহস্পতিবার নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে কিছু কথা শেয়ার করেন যা থেকে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে তিনি এই বিষয়ে কথা বলতে বিন্দুমাত্র আগ্রহী নন। নুসরাতের এ স্টরি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। নুসরাত নিজের ইনস্টাগ্রামে দুটি স্টোরি পোস্ট করেছেন যার একটিতে লেখা ছিল ‘আমার সব গল্প আমার বালিশ জানে, তাছাড়া অন্য কেউ জানে না’। আর অন্য একটি স্টোরি তে লেখা ছিল ‘সবাইকে খুশি করতে পারবোনা, আমি নিউট্রেলার বোতল নই’।

অভিনেত্রী কথা সাংসদ নুসরাত জাহান অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়া নেটিজেনদের প্রশ্ন একটাই ছিলো সন্তানের বাবা কে? এমনকি সন্তান জন্ম হওয়ার পর পর্যন্ত এই প্রশ্ন অভিনেত্রীর পিছু ছাড়েনি। তবে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর থেকে সন্তান জন্ম দেওয়ার পর পর্যন্ত তিনি কখনই এই বিষয়ে কোনো রকম বক্তব্য রাখেননি, শুধু বলেছেন যে বাবা সে জানে। তবে হঠাৎ একদিন এইভাবে সকলের সামনে চলে আসবে তা তিনি নিজেও ভাবতে পারেননি।

কলকাতা পৌরসভায় সন্তানের বাথ সার্টিফিকেট এর পিতার নাম এর জায়গায় দেবাশীষ দাশগুপ্ত ওরফে যশ দাশগুপ্তের নাম লিখেছেন অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। অনলাইন এই বার্থ সার্টিফিকেটের রেজিস্টার নাম্বার ১৬২৩ বলে নিশ্চিত করেছে কলকাতা পৌরসভা থেকে। ঈশানের জন্ম হওয়ার পর থেকে একসাথে রয়েছেন যশ এবং নুসরাত, এমনকি অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর থেকেই দুজনে একসাথে রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে বারবার।

ঈশান হওয়ার পর থেকে যশ এবং নুসরাতকে মাঝেমধ্যে একসঙ্গে বাড়ি থেকে বেরোতে দেখা গিয়েছে, বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে পার্টি করতে দেখা গিয়েছে। সেই থেকেই সকলেরই ধারণা ছিল সন্তানের পিতা আর কেউ নন যশ হতে পারেন, তবে এই ব্যাপারে কোনো নিশ্চয়তা ছিলনা নেটিজেনদের কাছে। তাই শুধুমাত্র ধারনার খাতিরে সমস্ত খবর তৈরি করা হচ্ছিল। তবে গতকাল রাতেই এই ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিলেন কলকাতা পৌরসভা থেকে।

এখন দেখার অপেক্ষা যশ এবং নুসরাত এই ব্যাপারে কতটা নিজেদের মতামত জানান সকলকে এবং আগামী দিনে যশ এবং নুসরাত কে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হতে পারেন তা নিয়েও খানিকটা কৌতুহল রয়েছে সকলের।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!
Back to top button