টলিউড

‘নুসরত জীবনের শ্রেষ্ঠ অভিনয় করেছেন নিখিল জৈনের সাথে বিয়ে অস্বীকার করে সেই অভিনয়েরই পুরস্কার পেলেন’! নুসরত মহানায়কের পুরস্কার পাওয়ায় কটাক্ষ শুরু এক দলের

কিছুদিন আগেই রাজ্য সরকার আয়োজন করেছিলো মহানায়ক সম্মান প্রদান অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানে মহানায়ক হিসেবে সম্মান প্রদান করা হয় তৃণমূলের সংসদ নুসরাত জাহান ও তৃণমূলের অন্যতম সদস্য তথা বাংলা টলিউড ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীকে। এই ঘটনার পর মানুষজন নানান রকম trolling করতে শুরু করেন। এত জনপ্রিয় অভিনেতা, অভিনেত্রী বাংলা ইন্ড্রাস্ট্রিতে থাকতেও সোহম চক্রবর্তী ও নুসরত জাহানকে পুরস্কৃত করার বিষয়টা অনেকেই হজম করতে পারেননি। স্যান্ডি সাহা যেমন এই বিষয় নিয়ে ট্রোলিং শুরু করে দিয়েছেন। নুসরতের সম্মানিত হওয়ার ছবির নীচে তিনি কমেন্ট করে লেখেন ‘আমার শরীর খারাপ করছেন’।

উল্লেখ্য এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের মধ্যে বাংলা চলচ্চিত্রের অনেক জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীর নাম বাদ চলে গিয়েছে। এই নিয়ে কথাও শুরু হয়ে গেছে। নজরুল মঞ্চে বঙ্গভূষণ সম্মান প্রদানের এই অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে বাংলা চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ও দেবকে বঙ্গভূষণ সম্মান দেওয়া হয়েছে। এর আগের বার যেহেতু ঋতুপর্ণা কে মহানায়ক সম্মান দেওয়া হয়েছিল তাই এইবার মহানায়ক সম্মানের জায়গায় নাম রয়েছে নুসরত জাহান ও সোহম চক্রবর্তীর। কিন্তু মহানায়ক সম্মানের তালিকা থেকে বাদ গিয়েছেন জিৎ। এই নিয়ে প্রশ্ন উঠতে থাকে সকলে বলতে শুরু করেন যে জিৎ এর বিপরীতে প্রথম ছবি করেছিলেন নুসরত, সেই নুসরত পুরস্কার পেয়ে গেলেন কিন্তু তার নয় বছর আগে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ করে একটার পর একটা জনপ্রিয় ছবি দর্শকদের উপহার করার পরেও জিৎ বঞ্চিত।

এই কারণ অনেকেই মনে করছেন যে জিৎ রাজনীতির সাথে সরাসরি ভাবে যুক্ত না হওয়ার জন্যই এমনটা ঘটেছে। এ প্রসঙ্গে অনেকেই কটাক্ষ করে লিখেছেন যে,“অনেকেই নুসরতের পুরস্কার প্রাপ্তি নিয়ে কটাক্ষ করছেন উনি জীবনের সেরা অভিনয়টা করেছিলেন যখন অক্লেশে বলেছিলেন, নিখিল জৈনকে কোনদিন বিয়েই করেননি যতদূর মনে হয় এটা তারই পুরস্কার।” অনেকে আবার সোহমের পুরস্কার পাওয়া নিয়ে কটাক্ষ করে বলেছেন,“ হরলিক্স চেটে চেটে মহানায়ক হয়ে গেলেন সোহম”।

Back to top button