টলিউড

‘শর্মিলা ঠাকুরের চরিত্র করবার জন্যই আমি বেঁচে ছিলাম!’ অচেনা উত্তমে শর্মিলার চরিত্রে অভিনয় করে খোদ শর্মিলার প্রশংসা কুড়িয়ে বললেন রাতশ্রী দত্ত

বাঙালির আবেগ ইমোশনের আরেক নাম উত্তম কুমার। বাংলা চলচ্চিত্রে তার অবদান যত বেশি বলা যাবে তত যেন কম বলা হয়ে যাবে। কারণ বাংলা চলচ্চিত্রে অনেক নায়ক রয়েছেন, অনেক নায়ক আসবেন কিন্তু উত্তম কুমার মহানায়ক হিসেবে থেকে যাবেন চিরকাল। তার জায়গাটা কখনোই কেউ নিতে পারবে না। সুচিত্রা সেন, সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, সুপ্রিয়া দেবী, মাধবী মুখোপাধ্যায় ও শর্মিলা ঠাকুরের মতো অভিনেত্রীদের সাথে উত্তম কুমারের জুটি সুপার ডুপার হিট ছিল। তাই যখন মহানায়কের বায়োপিক তৈরি হবে স্বাভাবিকভাবেই সেই বায়োপিকের একেকটি অংশ হবেন উত্তমের সকল নায়িকারা।

সম্প্রতি পরিচালক অতনু বসুর পরিচালনায় ‘অচেনা উত্তম’ ছবি আসছে। উত্তম কুমারের বায়োপিক অবলম্বনে তৈরি এই ছবির প্রোমো ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে চলে এসেছে। যে প্রমো তে দেখা যাচ্ছে কোন চরিত্রে কে আছেন। ছবিতে মহানায়কের চরিত্রে অভিনয় করছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, ছবিতে মহানায়িকার চরিত্রে অর্থাৎ সুচিত্রা সেনের চরিত্রে অভিনয় করছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায় চরিত্রে অভিনয় করছেন দিতিপ্রিয়া রায়।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ratasree Duttta (@ratashree)

এখন বলে রাখা ভালো এই প্রোমো প্রকাশের পর নেটিজেনদের থেকে আওয়াজ উঠতে শুরু করে যে, মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের ভূমিকায় কোন দিক থেকেই ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে মানাচ্ছে না আর সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের ভূমিকায় দিতিপ্রিয়া রায় কে একেবারেই ভালো লাগছে না। শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের মহানায়কের চরিত্র করা নিয়েও অনেকে জিজ্ঞেস করেন যে উত্তম কুমারের সাথে কোন জায়গায় শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের মিল আছে? শুধু এই প্রোমোর একটি লুক নেটিজেনদের খুব পছন্দ হয়েছে। এই ছবিতে শর্মিলা ঠাকুরের ভূমিকায় অভিনয় করছেন রাতশ্রী দত্ত, শর্মিলার লুকের সাথে তার মুখের এত মিল যে নেটিজেন তো দূরের খোদ শর্মিলা ঠাকুর পর্যন্ত ঘনিষ্ঠ মহলে রাতশ্রীর প্রশংসা করেছেন।

জনপ্রিয় বাংলা ওয়েব প্ল্যাটফর্মে সিরিজে অভিনয়ের পাশাপাশি বাংলাদেশে একটি বড় ছবি ও মুক্তি পেয়েছে মডেল ও অভিনেত্রী রাতশ্রীর। তবে অচেনা উত্তমের শর্মিলা ঠাকুরের চরিত্রে তার অভিনয় তার কাছে সৌভাগ্যের। শর্মিলা ঠাকুরের প্রশংসা পাওয়া প্রসঙ্গে রাতশ্রী বলেন, তার নায়ক সিনেমা মুখস্থ করা সার্থক হয়েছে। অন্যদিকে অচেনা উত্তমে এভারগ্রিন শর্মিলা ঠাকুরের চরিত্র পাওয়া প্রসঙ্গে সামাজিক মাধ্যমে অভিনেত্রী লেখেন, “ বাংলা সিনেমার মহান তম সুপারস্টারের গল্প এটি। যখন এই প্রস্তাব আমার কাছে এসেছিল তখন আমি বাংলা ছবির ইতিহাসের অংশ হওয়ার একটা সুযোগ হিসেবে তা গ্রহণ করে নিই। এই ছবিতে আমি এভারগ্রীন শর্মিলা ঠাকুরের চরিত্র এবং সত্যজিৎ রায়ের নায়ক ছবিতে তার অভিনীত চরিত্রে অভিনয় করছি। অভিনেত্রী হিসেবে এই ধরনের চরিত্রে কাজ করার জন্য আমরা বেঁচে থাকি।”

Back to top button