টলিউড

‘আমি রূপঙ্করকে কাজ দেবো,ওর কথাতে কেকে মারা যায়নি’, রূপঙ্কর বাগচীর এই সময়ে তার পাশে এসে দাঁড়ালেন টলিউডের জনপ্রিয় প্রযোজক রানা সরকার, করলেন বিতর্কিত মন্তব্য

কেকে র মৃত্যু নিয়ে এখনও তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। তার মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগেই সোশ্যাল মিডিয়ার লাইভে এসে কেকে সম্বন্ধে নানান ধরনের মন্তব্য করেছিলেন রূপঙ্কর বাগচী। তার করা সেই মন্তব্যগুলি নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়ার নেটিজেনরা। একের পর এক কটাক্ষের ঝড় আছড়ে পড়ে রুপংকরের উপর। এমনকি তার কাজও চলে যেতে শুরু করে। কেকের এহেন অপমান কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না ৯০ দশকের ছেলেমেয়েরা। বাংলা গানের পাশে দাঁড়ানোর নাম করে রূপঙ্কর বাগচী একজন শিল্পীকে যেভাবে অপমান করেছে তা সত্যি লজ্জাজনক।

শোনা গেছে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু সংস্থার রূপঙ্কর কে কাজ থেকে বাদ দিয়েছেন। এমনকি রুপঙ্করকে তার আগামী কাজগুলি থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। কিন্তু এই বিপদের সময় তার পাশে এসে দাঁড়ালেন কলকাতার জনপ্রিয় প্রযোজকরা রানা সরকার। এমনিতেই রানা সরকার খবরের শিরোনামে মাঝেমধ্যে উঠে আসেন। বিতর্কিত মন্তব্য জন্য তিনি হামেশাই চর্চায় থাকেন।

কয়েক মাস আগে অভিনেতা অভিষেকের মৃত্যুর জন্য তিনি সরাসরি দায়ী করেছিলেন ঋতুপর্ণা এবং প্রসেনজিৎকে। পরে অবশ্য তিনি প্রাইভেট করে দেন ভিডিওটি। কিন্তু এরপরে আবারো চিনেবাদাম ছবি থেকে যশ দাশগুপ্ত সরে আসার পর তাকে নিয়ে মন্তব্য করেন। এবার আবার রূপঙ্কর বাগচীর পাশে দাঁড়িয়ে খবরের শিরোনামে উঠে এলেন প্রযোজক। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিয়ে লেখেন, “রূপঙ্করকে বয়কট করছি না। আমি হিন্দি গান ভালোবাসি, বাংলা গান আরো বেশি ভালোবাসি, আমি অন্য বাংলা গানের পাশাপাশি রূপঙ্করদার গানও ভালোবাসি, মনে করি রূপঙ্কর বাংলা সংগীত জগতের এক সম্পদ; তাই রূপঙ্করদা-কে দিয়ে আমাদের পরের ছবিতে একটা গান গাওয়াবো যদি উনি গাইতে চান…।” রানা সরকারের এই মন্তব্যের পর নেটিজেনরা তাকে নিয়ে কটাক্ষ সমালোচনা শুরু করে দেয়। অনেকেরই দাবি ‘রতনে রতন চেনে’ আসলে রূপঙ্কর বাগচী এবং রানা সরকার দুজনেই বিতর্কিত কারণে খবরের শিরোনামে উঠে আসে। তাই রানা সরকার রূপঙ্কর বাগচী পাশে দাঁড়ানোই স্বাভাবিক।

Back to top button