ঝড় ‘ইয়াশে’ বিধ্বস্ত দুঃস্থ মানুষের কাছে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পৌঁছে দেবেন রঞ্জিত মল্লিকের মেয়ে কোয়েল

সম্প্রতি ২৬-শে মে বঙ্গ ওড়িশার উপকূলে আছড়ে পড়েছিল ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। ইয়াসের প্রকল্পে পড়ে ক্ষতি হয়েছে বহু মানুষের। করোনার জেরে একেই জর্জরিত মানুষ তার ওপর ঘূর্ণিঝড় দিশাহীন করে দিয়েছে বহু মানুষকে।

ঘরহারা ভিটে হারা হয়েছেন বহু মানুষ। গ্রামের পর গ্রাম জলের তলায় চলে গেছে। বেঁচে থাকার জন্য যেটুকু জিনিস প্রয়োজন হয় সবটুকু ভেসে গেছে এই অসহায় মানুষগুলোর।

এর পরে তারা কিভাবে বেঁচে থাকবেন সেটা তারা সত্যিই জানেন না। এবার সেই অসহায় দুঃস্থ মানুষদের দিকেই হাত বাড়িয়ে দিলেন অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক।

ইয়াসের প্রভাবে কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চল গুলোর খুব একটা ক্ষতি না হলেও উপকূলবর্তী গ্রামের মানুষগুলো খুব ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সামান্য খাবারটুকু জোটানোর ক্ষমতা নেই তাদের। জলে ভেসে গেছে সব। গায়ের পড়ার মতো জামাও নেই তাদের। তাই বহু সাধারণ মানুষ তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন এবং পাশাপাশি অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাও তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সাথে যুক্ত হয়ে বহু তারকারাও তাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে ওই অসহায় মানুষ গুলোর দিকে। এবার অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক তার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন এই অসহায় মানুষ গুলোর দিকে।

সম্প্রতি তিনি তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকে একটি পোস্টার পোস্ট করেছেন যেখানে সাধারণ মানুষের কাছে আবেদন রাখা হয়েছে এই দুস্থ মানুষগুলোর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য।

সম্প্রতি অভিনেত্রী তার সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট থেকে যে পোস্টারটি পোস্ট করেছেন তাতে লেখা আছে উপকূলবর্তী অসহায় মানুষগুলোর জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার কথা।

ওই অসহায়-দুস্থ মানুষগুলো খাদ্য বস্ত্রহীন তাই তাদের জন্য প্রয়োজনীয় কিছু শুকনো খাবার চিরে, গুড় ছাড়াও অন্যান্য যেকোন রকমের শুকনো খাবার এবং প্রয়োজনীয় কিছু ঔষধ স্যানিটারি ন্যাপকিন জামা কাপড় আগামী ৬-ই জুনের মধ্যে তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার আর্জি জানিয়েছে।

অভিনেত্রী যে পোস্টার টি পোস্ট করেছেন তাতেই সব কথা লেখা আছে এবং এমনিতেই লেখা আছে একটি নাম কৌস্তব সেনগুপ্ত এবং যোগাযোগের জন্য একটি নম্বার দিয়ে দেওয়া আছে। নম্বরটি হল ৯৯০৩৩১৭৭৪২।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Koel Mallick (@yourkoel)