টলিউড

“কাটমানি নিয়ে সিনেমা করব, গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে মালদ্বীপে ছুটি কাটাতে যা” – দেবকে রাজনৈতিক মতবিরোধের জেরে ব্যক্তিগত আক্রমণ করলেন সুপারস্টার হিরন

দেব বনাম হিরণ। তবে সিনেমার দিক থেকে নয়, রাজনৈতিক দলের ভিত্তিতে এই দ্বন্দ্ব। খড়গপু্র সদরের বিধায়ক হিরণ চট্টোপাধ্যায় এদিন ঘাটালে আসেন বিজেপির এক দলীয় জনসভায়, এখানে উপস্থিত ছিলেন শুভেন্দু অধিকারীও। এই জনসভা থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত। সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে অনেক ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে কিছু মন্তব্য করেন অভিনেতা হিরণ চট্টোপাধ্যায়।

ঘাটালে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, “গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে আমি মালদ্বীপে সুইমিং করব আর ঘাটালের মানুষ বন‍্যার সময়ে জলের তলায় সুইমিং করবে।” বলে রাখা ভালো দেব ও রুক্মিণীর জুটি সকলেরই চেনা, তারা কিছুদিন আগে মালদ্বীপে ছুটিও কাটাতে গেছেন একসাথে। হিরণ এহেন বার্তা সম্ভবত অভিনেতা তথা ঘাটালের বিধায়ক দেবের উদ্দেশ্যেই করেছেন। তিনি আরো বলেন “সাংসদ হিসাবে প্রতি মাসে মাইনে নেব। এখানে যা কাজ হবে সেখান থেকে কাটমানি নেব। আবার গরু চোর এনামুল হকের কাছ থেকে কাটমানি নেব। কাটমানি নিয়ে সিনেমা করব, গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে মালদ্বীপে ছুটি কাটাতে যাব‍”।

ঘাটালে দাঁড়িয়ে ঘাটালের সাংসদকে নিয়ে এমন মন্তব্য নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি দেব। ঘাটালে তার প্রতিনিধি এই ভিডিও ইতিমধ্যেই সাংসদ দেবকে পাঠিয়েছেন বলে জানান রামপদ মান্না। তবে কুনাল ঘোষ জানান দুজনেই একই ইন্ডাস্ট্রি থেকে এসেছেন, একে অপরের সহকর্মী, সেখানে এরূপ কুরুচিকর মন্তব্য কখনোই করা উচিত নয়, যেখানে হিরণ নিজে এক সর্বভারতীয় দলের সাংসদ। ঘাটালের উন্নয়ন পরিস্থিতি নিয়ে এরকম অনেক প্রশ্ন রেখে গেছেন হিরো হিরণ।

ঘাটালের উন্নয়ন ও বন্যা পরিস্থিতি সামাল দিতে অনেক পদক্ষেপই নিয়েছেন অভিনেতা দেব। ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান নিয়ে কেন্দ্রের কাছে একাধিকবার সুপারিশ করেছেন তিনি, কোনো সদুত্তর পাননি। এমন তর্ক বিতর্ক রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে হামেশাই চলে, তবে হিরণের এমন দেবের পার্সোনাল জীবন নিয়ে আক্রমণকে নেহাতই ‘আনপ্রফেশনাল’ বলে জানিয়েছেন রাজনীতি নিয়ে থাকা মানুষজন।

Back to top button