টলিউড

‘জনঅরণ্য’ ছবির সোমনাথ চলে গেলেন অকালে! মারা গেলেন জনপ্রিয় অভিনেতা প্রদীপ মুখোপাধ্যায়!

জনপ্রিয় অভিনেতা প্রদীপ মুখোপাধ্যায় বেশ কিছুদিন ধরে ফুসফুসের সংক্রমণে ভুগ ছিলেন। বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই তার অবস্থা বেশ সংকটজনক। কিছুদিন আগে তাকে দমদম অঞ্চলের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার সারা দেহে স্টেপিসিমিয়া হয়ে যাওয়ার ফলে তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিলো কিন্তু এত কিছু করেও তাকে বাঁচানো যায় নি। ৭৬ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।সকাল ৮:১৫ তে ইহ লোক ছেড়ে পরলোকের পথে পাড়ি দিলেন জন অরণ্য ছবির সোমনাথ।

মৃত্যুর কিছুদিন আগেই নির্মল চক্রবর্তীর ছবি ‘দত্তা’র শুটিং শেষ করেছেন তিনি। চার দিন শুটিং করেই অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিনেতা। এই বিষয়ে তার পরিবারের লোকেদের বক্তব্য,“অনেক বার বারণ করেছিলাম শুটিং না করতে। কিন্তু বারবার বলেছে আমি না গেলে অনেক বড় টাকা ক্ষতি হয়ে যাবে।”

রয়ে গেল তার করা কাজগুলি অমর অক্ষয় হয়ে। নাট্যকার ও অভিনেতা প্রদীপ মুখোপাধ্যায় বেশ কিছুকাল যে ছবিতে কাজ করেছেন। তার কাল যে ছবিগুলির মধ্যে জন অরণ্যের নাম তো শোনা যায়, এছাড়া বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর সাথে দূরত্ব ছবিতে কাজ করেছিলেন অভিনেতা। ঋতুপর্ণ ঘোষের সাথে প্রদীপ মুখোপাধ্যায়ের কাজ করেছিলেন উৎসব ছবিতেও।

শিমলা অঞ্চলে বড় হয়ে উঠেছিলেন তিনি পড়াশোনা করেছেন উত্তর কলকাতার হেয়ার স্কুল থেকে। এরপর সিটি কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করেন প্রদীপ মুখোপাধ্যায়। ১৯৭৬ সালে ‘জনঅরণ্য’ ছবির জন্য সম্মানীয় ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড‌ও পান। ১৯৭৭ সালে বিয়ে করেন প্রদীপ মুখোপাধ্যায়, দুই সন্তান রয়েছে তার।

অভিনেতা প্রদীপ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে তারকারা সকলেই শোক জ্ঞাপন করছেন। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শোক জানিয়েছেন, তিনি বলেছেন, “বিশিষ্ট অভিনেতা প্রদীপ মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। সত্যজিৎ রায়ের জন অরণ্য, ঋতুপর্ণ ঘোষের উৎসব, বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের দূরত্ব প্রভৃতি চলচ্চিত্র ছাড়াও বহু নাটকে তিনি অভিনয় করেছেন। তার প্রয়াণে অভিনয় জগতের অপূরণীয় ক্ষতি হলো। আমি প্রদীপ মুখোপাধ্যায়ের পরিবার পরিজন অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।”

Back to top button