টলিউড

‘স্বচ্ছ ভাবে ভোটে নির্বাচন হলে বিজেপি কালই ক্ষমতায় আসবে’ বিরোধী দলের দিকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন মিঠুন চক্রবর্তী

বাংলার নির্বাচনের প্রক্রিয়া কখনোই স্বচ্ছ ভাবে হয় না। এই অভিযোগ বারবার এনেছে বিরোধী দলরা। এমনকি ভোট চলাকালীন গণনার সময় আমরা খবরের চ্যানেলগুলিতেও দেখি বিভিন্ন জায়গায় কারচুপি হচ্ছে নকল ভোটাররা এসে নিজেদের দলের হয়ে ভোট দিচ্ছে এটা নতুন কিছু নয়। বুধবার হেস্টিংস এর বিজেপির পার্টি অফিসে বসে এই একই অভিযোগ তুললেন মিঠুন চক্রবর্তী। অভিযোগের সাথে সাথে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন বিরোধী পক্ষের দিকে। যদি স্বচ্ছ ভাবে ভোটের নির্বাচন গণনা হয় তাহলে বিজেপি কালই রাজ্যের শাসন ক্ষমতায় চলে আসবে।

বুধবার দিন বিজেপি বিধায়কদের নিয়ে বৈঠক করার পরে সাংবাদিক সম্মেলনের মুখোমুখি হন মিঠুন চক্রবর্তী। সেখানেই তিনি সকলের সামনে বলেন যখন বম্বেতে ছিলেন তখন একদিন সকালে উঠে দেখেন বিজেপি আর শিবসেনা জোট বেঁধে সরকার গড়েছে। এখানে তেমনটা হবে না কেন? যদি স্বচ্ছ ভাবে ভোট নির্বাচন হয় তাহলে অবশ্যই বিজেপি শাসন ক্ষমতায় চলে আসবে। এছাড়াও মিঠুন চক্রবর্তী ঐদিন গোপন তথ্য ফাঁস করেন যে ৩৮ জন তৃণমূল বিধায়ক গোপনে বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। তার মধ্যে ২১ জন নাকি সরাসরি তার সঙ্গেই যোগাযোগ করেছেন। যদিও তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষের দাবি মাঝে মধ্যে প্রচার পাওয়ার জন্য শহরে এসে এসব কথা বলে থাকেন মিঠুন চক্রবর্তী।

কুনাল ঘোষ সরাসরি বলেন আগে জ্বালানি, গ্যাসের দাম, GST এসব নিয়ে আলোচনা হোক। ভোটের প্রচার নয় এ বছর পরে করা যাবে। এছাড়াও মিঠুন চক্রবর্তী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে ছোট বোন হিসেবে সম্বোধন করায় সেটা নিয়েও কটাক্ষ করতে ছাড়েনি কুনাল ঘোষ। দিদি ভাইয়ের সম্পর্ক গুলোকে নাকি কলঙ্কিত করছে মিঠুন চক্রবর্তী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেওয়া সম্মানকে নাকি তিনি অবহেলা করেছেন অসম্মান করেছেন। পিছন থেকে ছুরি মেরেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পিঠে। তাই দিদি ভাইয়ের সম্পর্ক নাকি মিঠুন চক্রবর্তীর মুখে মানায় না দাবি তৃণমূল মুখপাত্রের।

এর আগে বিধানসভা নির্বাচনের সময়ে শহরে এসে প্রচার করেছিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। তখন মঞ্চে ঝড় তুলে গিয়েছিলেন। তার কিছু ডায়লগ নিয়ে তৈরি হয়েছিল মিম সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে নিয়ে তুলকালাম হয়েছিল। তারপরে অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিনেতা। বেশ কিছুদিন শহরে ছিলেন না আবার শহরে ফিরে প্রচারে দেখা গিয়েছে তাকে। বিধানসভার ফল প্রকাশের পর বেশ কষ্ট পেয়েছিলেন তিনি। যারা দল ছেড়ে বেরিয়ে গেছে তাদের জন্য কষ্ট পেয়েছিলেন। তাই এবার শহরে ফিরে এসে সরাসরি জানিয়েছেন যারা দল ছাড়তে চায় তারা এখনই যাতে ছেড়ে চলে যায়।

Back to top button