টলিউড

“নকল হিন্দু সেজে সনাতন ধর্মকে ছোট করা, ন্যাকামি” – লাল পাড় সাদা শাড়ি, লম্বা খোলা চুল, হাতে পদ্ম নিয়ে পুজোর ভিডিও শুট করায় কটাক্ষের শিকার নুসরাত

ইতিমধ্যেই দেবীপক্ষের সূচনা ঘটে গিয়েছে। পিতৃপক্ষের অবসান ঘটিয়ে পিতৃপুরুষকে স্মরণ করে দেবীর আশ্রয়ে বাঙালির দিনযাপন শুরু হয়েছে গতকাল থেকেই। কিন্তু এই দিন আগমনের শুভেচ্ছা জানিয়ে নিজের ভিডিও শেয়ার করায় কটাক্ষের সম্মুখীন হতে হল নুসরাতকে। প্রসঙ্গত অভিনেত্রী মুসলিম পরিবার থেকে হলেও হিন্দুদের সমস্ত রকম অনুষ্ঠান এই সামিল হতে দেখতে পাওয়া যায় তাঁকে। দুর্গাপূজার অঞ্জলি থেকে শুরু করে বাবা লোকনাথের মন্দিরে ভোগ রান্না পর্যন্ত করেছেন তিনি। বিভিন্ন সময় নিজের গণ্ডির বাইরে বেরিয়ে বিভিন্ন রকম কাজ করায় কটাকে সম্মুখীন হতে হয়েছে তাঁকে। এইবার মহালয়া স্পেশাল ভিডিও শুট করে আরো একবার কটাক্ষের বিধলো নুসরতকে। বাঙালি সাজে আবেদনময়ী চাহনিতে অনবদ্য নুসরাত।

সম্প্রতি সংসদ অভিনেত্রী নুসরাত জাহান তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। যেখানে অভিনেত্রীকে দেখা গেল একেবারে বাঙালি কন্যার সাজে। শুধু বাঙালি কন্যা বলা ভুল হবে অভিনেত্রীকে দেখা গিয়েছে মাতৃ প্রতিমার সাজে। এই ভিডিওতে অভিনেত্রীর পরনে ছিল লাল পাড় সাদা শাড়ি। চোখে কাজল, কপালে লাল টিপ, হাতে ও পায়ে আলতা, পায়ে রুপোর নুপূর, পরনে হালকা সোনার গয়না, হাতে পদ্ম নিয়ে পুকুড় পাড়ে বসে নুসরত। এই সাজে অন্তত বাঙ্গালীদের বুঝতে অসুবিধা হবে না যে দেবীর রূপের সাজে সজ্জিতা হয়েছে নুসরাত। শুধু তাই নয় সেখানে দেখা গেল এক শিল্পী মাতৃ প্রতিমাও নির্মাণ করছেন। আর নেপথে বাজছে “বাজলো তোমার আলোর বেণু”। এতসব কিছুর মধ্যে দিয়ে অন্তত বাঙ্গালীদের কোনোভাবেই এটি বুঝতে অসুবিধা হবে না যে সম্পূর্ণ বিষয়টি ঠিক কিসের উপর ভিত্তি করে। জানা গিয়েছে, অভিনেত্রী বাওয়ালি রাজবাড়িতে ভিডিয়োটি শ্যুট করেছেন।

প্রসঙ্গত মূলত এই ভিডিওর হাত ধরে অভিনেত্রী সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির কথা বলতে চেয়েছিলেন। এর আগেও আমরা অভিনেত্রীকে দেখেছি। এই ধরনের বিভিন্ন ফটো, ভিডিও পোস্ট করে অভিনেত্রী সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দিয়েছেন। এর আগেও অভিনেত্রী কে আমরা দুর্গাপূজার অঞ্জলি এমনকি বাবা লোকনাথের ভোগ রান্না করতেও দেখতে পেয়েছি। তখনো অভিনেত্রী একই বার্তা দিয়েছিলেন। এবারেও ঠিক একই কাজ করার চেষ্টা করলেন তিনি। তবে হয়তো সফল হলেন না। কারণ এই ভিডিও পোস্ট হওয়ার সাথে সাথেই বিভিন্ন ধরনের কটাকে সম্মুখীন হতে হয়েছে তাঁকে। বডি শেমিং থেকে শুরু করে ধর্ম নিয়ে কটাক্ষ কোনো কিছুই বাদ যায়নি।

ধর্ম নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কটাক্ষ এর আগেও শুনতে হয়েছিল অভিনেত্রীকে। মূলত অভিনেত্রী মুসলিম কন্যা সেটা নিয়েই তীব্র বিরোধিতা করেন সোশ্যাল মিডিয়ায় একাংশ। যে মুসলিম হয়ে তিনি কেন হিন্দু ধর্মের আচার-আচরণ পালন করেন। ঠিক এবার এ রকমই একজন লিখেছেন, “নকল হিন্দু সেজে সনাতন ধর্মকে ছোট করা, ন্যাকামি”। কিন্তু এর আগেও অভিনেত্রী বারবার বলেছেন তিনি ধর্মে বিশ্বাসী নয় ধর্ম যদি কিছু হয়ে থাকে তবে তিনি মনুষ্যত্বের ধর্মে বিশ্বাসী। তবে অনেকেই আবার অভিনেত্রীর সাম্প্রদায়িক মনোভাবের বেশ প্রশংসাও করেছেন। যেমন একজন লিখেছেন, “খুব সুন্দর,মুসলিম হয়েও এত সুন্দর করে বাঙালি ঐতিহ্যকে তুলে ধরার জন্য, ভালো লাগছে তোমাকে নুসরত”। তবে অভিনেত্রীর রূপের কদর করেন এরকম অনুরাগের সংখ্যাও কিন্তু কম নয়। অনেকেই অভিনেত্রী রূপের চূড়ান্ত প্রশংসা করেছেন এই ভিডিওতেই। কিন্তু ওই যে একটা ভালো থাকলে একটা খারাপ থাকবেই। যেমন রূপের প্রশংসা পেয়েছেন তেমনি পেয়েছেন বডি শেমিং। যেমন একজন লিখেছেন, _ভালো লাগছে কিন্তু ঠোঁটটা সার্জারির পর অহেতুক বড়ো লাগে”।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Nusrat J Ruhii (@nusratchirps)

Back to top button