টলিউড

আবারো বোল্ড অবতারে ক্যামেরার সামনে ধরা দিলেন সংসদ অভিনেত্রী নুসরাত, অভিনেত্রীর মোহময়ী অবতারে মেতেছে নেট পাড়া

টি টাউনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের লিস্টে প্রথম ১০ জনের মধ্যে এই অভিনেত্রীর নাম থাকাটা খুবই কাঙ্ক্ষিত। মাঝেমধ্যে নিজের বিভিন্ন বোল্ড অবতারের ছবি পোস্ট করেন তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর সেই ছবিতে মেতে থাকে নেট পাড়া। যদিও বেশ কিছুদিন ধরে অভিনেত্রী নতুন কোন কাজ আসার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। আবার শোনা গিয়েছিল হিন্দির বিগবসে দেখতে পাওয়া যাবে অভিনেত্রীকে। যদিও বিষয়টি পরে জানতে পারা যায় যে তা নিহাতই গুজব। তবে কাজের থেকেও বেশি তাঁর অনুরাগীরা তাঁকে ফলো করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সম্প্রতি অভিনেত্রী তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেল একটি ছবি শেয়ার করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রীর পরনে রয়েছে একটি সোনালী রঙের ওয়েস্টার্ন ড্রেস। পিঠে ঝুলছে সোনালী নেক পিসের চেন। তবে মেকআপ একেবারেই বোল্ড। তবে স্মোকি লুক। চুল একেবারে এলোমেলো। ছবিতে অভিনেত্রী পোস্ট দিয়েছেন নিজের এলোমেলো চুলকে হাত দিয়ে ধরে রেখে। ছবিগুলি শেয়ার করে অভিনেত্রী ক্যাপশনে লেখেন, “চোখের মাধ্যমে যোগাযোগও শিল্প”।

ক্যাপশন এর সাথে আবার লাল রঙের হার্ট ইমোজি জুড়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী। অভিনেত্রীর রূপের প্রশংসা করে একজন কমেন্ট করেছেন, “কিলার লুক”। অভিনেত্রীর এই লুকে ঘায়েল হয়েছে নেট পাড়ার বিপুল অংশের মানুষ। তারা চাইছে এই ফটোশুটের আরো কিছু ছবি সামনে আসুক সকলের।

প্রসঙ্গত গত কয়েক বছর ধরে বেশ ভালই সমালোচনার শীর্ষে রয়েছেন অভিনেত্রী। তার সূত্রপাত হয় নিখিল জৈনের সঙ্গে তাঁর বিয়ে তারপর সেই বিবাহ বিচ্ছেদ এবং স্বামীর সাথে না থেকেও সন্তান সম্ভবা হাওয়া সবটাই সমালোচনার শীর্ষে উঠিয়ে দেয় অভিনেত্রীকে। সন্তানের জন্মের পরেও পিতৃপরিচয় না বলাতেও বেশ ভালই সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি। যদিও তারপরে অভিনেত্রী স্বীকার করেন তাঁর একমাত্র পুত্র ঈশানের বার্থ সার্টিফিকেটে নাম রয়েছে যশ দাশগুপ্তের। তখন অভিনেত্রী এটাও জানিয়েছিলেন যে ঈশান কোনভাবেই বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের ফল নয়। সুতরাং এটা স্পষ্ট যে লুকিয়ে হলেও বিয়ে শেরেছেন যশের সাথে।

প্রসঙ্গত নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সমালোচনার শীর্ষে রয়েছেন অভিনেত্রী। তবে নিজের কাজের জন্য ঠিক কতটা প্রশংসা পান সে বিষয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কারণ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে কিছুদিন আগেই অভিনেত্রীকে দেওয়া হয় মহানায়ক সম্মান। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে রব উঠেছে নুসরাত কোনোভাবেই সম্মানের দাবিদার নয়। তাহলে বুঝতেই পারছেন অভিনেত্রীর কাজে যথেষ্ট খুশি হচ্ছেন না দর্শক। প্রসঙ্গতা অভিনেত্রীকে শেষবারের জন্য দেখা গিয়েছে “স্বস্তিক সংকেত” এ। কিন্তু বক্স অফিসে তা একেবারেই মুখ থুবড়ে পড়ে। এরপরে অভিনেত্রী আরো কিছু সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। যেমন – “জয় কালী কলকাত্তাওয়ালী”, “মাস্টার মশাই আপনি কিছু দেখেননি”।

Back to top button