টলিউড

সুখবর দিলেন ঐন্দ্রিলা শর্মার মা, শারীরিক অবস্থার বেশ কিছুটা উন্নতি হলো অভিনেত্রীর

বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় একজন অভিনেত্রী হলেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। দীর্ঘ লড়াই করে ক্যান্সার থেকে উঠেছিলেন বেশ কিছুদিন আগেই। কিন্তু আবার হঠাৎ করেই মঙ্গলবার দিন রাতে ব্রেন স্ট্রোক হয় অভিনেত্রীর। হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে আশঙ্কা জনক অবস্থায় ভেন্টিলেশনে ভর্তি ছিলেন তিনি। জানা গিয়েছিল স্ট্রোকের কারণে মাথায় রক্ত জমাট বেঁধে রয়েছে।

হাওড়ার যে বেসরকারি হাসপাতালে অভিনেত্রীকে ভর্তি করানো হয়েছিল সেখান থেকে চিকিৎসকদের সূত্রে জানানো হয়েছিল যে মাথায় রক্ত জমাট বাঁধার দরুন কোমায় রয়েছেন তিনি। অভিনেত্রীর মায়ের তরফ থেকে জানতে পারা গিয়েছিল সব ঠিকঠাকই ছিল বাড়িতে। হঠাৎ করেই অভিনেত্রী শরীরের একটা হাত প্রথমে অসাড় হয়ে যায়। তারপর ঠিক সেই দিকের পা টাও অসাড় হয়ে যায়। আর সাথে বমি করতে থাকেন তিনি। তাই তখনই তাঁকে সাথে সাথেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারপরে এমন অবস্থা জানতে পারা গিয়েছে।

তবে অভিনেত্রীর মা বর্তমানে জানিয়েছেন এখন অভিনেত্রী কিছুটা সুস্থ রয়েছেন। আটচল্লিশ ঘন্টা না কাটলে চিকিৎসকের তরফ থেকে কিছু বলা যাবে না। তবে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা এখন চোখের পাতা নাড়াতে পারছেন। এছাড়াও একটা হাতও নাড়াতে পারছেন। অভিনেত্রীর মায়ের কথায় এত মানুষের ভালোবাসা, এত মানুষের প্রার্থনা বিফলে যাবে না। মায়ের চোখে মেয়ের কষ্ট দেখতে কষ্ট হলেও তিনি জানেন তাঁর মেয়ের সুস্থ হয়ে উঠবে। তাঁর মেয়ে যোদ্ধা একথা তিনি নিজেও বলেন। প্রেমিক সব্যসাচী ভেঙে পড়েছিলেন ঠিকই তবে নিজেকে সামলে নিয়ে প্রেমিকার পাশে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত অসুস্থতা কাটিয়ে অভিনেত্রী ব্যস্ত ছিলেন নিজের কাজের জগতে। ওয়েব সিরিজে কাজের জন্য গোয়ায় যাওয়ার কথা ছিল তাঁর। তবে এখন যদিও সপ্তাহে বন্ধু। “ভোলে বাবা পার করেগা” নামক জি বাংলা অরজিনালস এর একটি সিনেমাতে অনির্বাণ চক্রবর্তীর মেয়ের ভূমিকায় কিছুদিন আগেই অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী। এবার শুধু সকলের একটাই প্রার্থনা যে ঐন্দ্রিলা তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠুন।

Back to top button