বলিউড

ক্ষুধার্ত শিশুদের জন্য খুলল না গাড়ির কাঁচ! কোটি টাকার মালিক হয়েও মুখ ঘুরিয়ে চলে গেলেন রশ্মিকা মন্দানা, তীব্র কটাক্ষের সম্মুখীন হলেন জাতীয় ক্রাশ তথা দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অভিনেত্রী রশ্মিকা মন্দানা

বর্তমানে বলিউড সিনেমার পাশাপাশি চাহিদা বেড়েছে দক্ষিণের সিনেমা গুলির। আর এই দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন রেস্মিকা মান্দানা। বর্তমানে তিনি শুধু তামিল, তেলেগু ইন্ডাস্ট্রির মানুষগুলোর কাছে জনপ্রিয় নয় সিনেমা প্রেমী সমস্ত মানুষের কাছেই তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয়। জাতীয় ক্রাশ বলে খ্যাত ছিলেন রেশমিকা। খুব শীঘ্রই বলিউডে পা রাখতে চলেছে এই অভিনেত্রী। সিদ্ধার্থ মালহোত্রা র বিপরীতে ‘মিশন মজনু’ ছবির হাত ধরে বলিউডে অভিষেক হবে তার। তার মিষ্টি হাসিতে কুপোকাত গোটা সোশাল মিডিয়া। কিন্তু এই অভিনেত্রী ও একাধিক বার ট্রোলের সম্মুখীন হয়েছেন। সম্প্রতি আবারও সেই সমালোচনার মুখে পড়তে হলো অভিনেত্রী কে।

সম্প্রতি রেশমিকার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। এই ভিডিওটিতে তাকে দেখা যাচ্ছে মুম্বাইয়ের কোন একটি রেস্তোরাঁয় থেকে বের হচ্ছেন তিনি এবং কয়েক জন দরিদ্র শিশু খাবার এবং অর্থের জন্য তার কাছে ছুটে যায়। কিন্তু বাচ্চাগুলোর ডাকে সাড়া না দিয়ে মুচকি হেসে নিজের মতো গাড়িতে উঠে যান তিনি আর এই ভিডিওটি সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয়ে পড়ায় নেটিজেনদের তীব্র কটাক্ষের মুখে পড়েছেন অভিনেত্রী। সকলেই ধিক্কার জানিয়েছে অভিনেত্রীকে। অনেকেই নানান ভাবে কটাক্ষ করেছেন রেশমি কাকে।

এই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পরেই রেশমি কাকে একটি সাক্ষাৎকারে এই ট্রোল ব্যাপারটি নিয়ে প্রশ্ন করা হয় তার উত্তরে রেশমিকা জানিয়েছেন “আমি নিজেকে সন্দেহ করতে শুরু করেছি। আমার কি করা উচিৎ? আমার কি হাত কাটা উচিত? আমি যাই করি না কেন, নিজেকে মানাতে পারছি না কারণ আমি একটি নির্দিষ্ট হিসেবে আচরণ করতে পারিনা।অবশ্যই ভীষণ ভাবে এই ট্রোলিং বিষয়টি প্রভাবিত করছে আমায়। শুধু একটাই কথা বলবো আমাকে বদনাম করো কিন্তু আমার পরিবারকে নয়।”

Back to top button