বলিউড

মুম্বাই এয়ারপোর্ট থেকে ছাতায় মুখ লুকিয়ে গাড়িতে উঠতে দেখা গেল বলিউডের বাদশাকে, ছেলের জন্য মুখ দেখতে পারছেন না কিং খান

গত একমাস ধরে আরিয়ান খান মাদক মামলা নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। বলিউডের বাদশা নিজের গোটা কেরিয়ারে সেভাবে আইনি ঝামেলায় জড়াননি। তবে বড় ছেলে আরিয়ান খানের জন্য থানা থেকে আদালত সব জায়গাতেই ঘুরতে হয়েছে শাহরুখ খান এবং গৌরি খানকে। সম্প্রতি মুম্বাইয়ের প্রাইভেট এয়ারপোর্ট থেকে ছাতায় মুখ লুকিয়ে গাড়িতে উঠে যেতে দেখা গিয়েছে শাহরুখ খানকে।

অক্টোবর মাসের শুরুর দিকে মুম্বাই থেকে গোয়াগামী এক বিলাসবহুল ক্রুজে তল্লাশি চালিয়ে এনসিবির কর্মকর্তাদের হাতে ধরা পড়েছিলেন আরিয়ান খান। প্রায় এক মাস জেল হেফাজতে ছিলেন তিনি। সেই সময় জেরার মুখে মাদক মামলায় তার যুক্ত থাকার কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন আরিয়ান। আরিয়ান খানের জামিনের আবেদন বারবার খারিজ করেছিল আদালত। পরে হাইকোর্টের তরফ থেকে মঞ্জুর করা হয় তার জামিন। বর্তমানে তিনি নিজের বাড়িতেই রয়েছেন।

জেল থেকে ফেরার পর তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলেই জানা গিয়েছে। তার জন্য আলাদাভাবে ডায়েট চার্ট বানানো হয়েছে। রাখা হয়েছে একজন মনোবিদকেও। ‘মান্নত’এ এখন বাইরের লোকের আনাগোনা বন্ধ রয়েছে। শুধুমাত্র ঘনিষ্ঠমহলে কয়েকজনের আনাগোনা রয়েছে মান্নতে। শোনা গেছে, মান্নত থেকে আরিয়ানকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হতে পারে আলিবাগের বাংলাতে। শাহরুখ খান ও গৌরি খান দুজনেই কিছুটা সময় দিতে চান আরিয়ানকে ঠিক হওয়ার জন্য।

সম্প্রতি মুম্বাইয়ের প্রাইভেট এয়ারপোর্ট থেকে ছাতায় মুখ ঢেকে সোজা গাড়িতে উঠে যেতে দেখা গেল কিং খানকে। তবে কেন এই লুকোচুরি সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে নেটদুনিয়ায়। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে বলিউডের বাদশার এক দেহরক্ষী কাল ছাতা দিয়ে আড়াল করছেন এবং সেইসময়ই কিং খান নীচু হয়ে মুখ লুকিয়ে গাড়িতে উঠে যান। গাড়ির কাঁচ কালো হওয়ায় দেখা যায়নি বাদশাকে।

এদিন মুম্বাই থেকে দিল্লি গিয়েছিলেন শাহরুখ খান। এই সফরে তার সঙ্গী কে ছিলেন তা জানা যায়নি। সম্ভবত তিনি একাই গিয়েছিলেন সেদিন। গত রবিবার নিজের ব্যক্তিগত বিমানেই দিল্লি গিয়েছিলেন তিনি।

জেল হেফাজত থেকে ছাড়া পাওয়ার পর সাত দিন পরেই এনসিবির দফতরের সামনে দেখা গিয়েছিল শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খানকে। গত রবিবার ফের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তবে সেদিন উপস্থিত ছিলেন না আরিয়ান খান। কারণ হিসেবে শারীরিক অসুস্থতার কথাই জানিয়েছেন তারা। এনসিবির দপ্তর থেকে জানানো হয়েছিল, “আজ কিছু জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরিয়ান খানকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সামান্য জ্বরের জন্য তিনি এনসিবি অফিসে উপস্থিত হতে পারেনি।” পরে আবার কবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরিয়ানকে ডাকা হবে তা এখনও জানা যায়নি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

Back to top button