বলিউড

‘আমার এই সম্মান অনেকের মুখ বন্ধ করবে’, ‘পদ্মশ্রী’ পেলেন বলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত

বলিউড ইন্ডাস্ট্রি অন্যতম বিতর্কিত অভিনেত্রী হলেন কঙ্গনা রানাউত। কোন না কোন কারণে মিডিয়াতে চর্চায় থাকেন তিনি। কঙ্গনা রানাউত আর বিতর্ক একে অপরের সমর্থক হয়ে উঠেছেন। রাজনৈতিক হোক বা বিনোদন যেকোনো ধরনের বিষয়ে একটা বিতর্কিত মন্তব্য না করে অভিনেত্রী থাকতে পারেন না। সম্প্রতি এই বিতর্কিত অভিনেত্রী ‘পদ্মশ্রী’র মত সম্মানে ভূষিত হলেন।

কয়েক সপ্তাহ আগে দিল্লীর বিজ্ঞান ভবনে ‘জাতীয় সেরা অভিনেত্রী’র পুরস্কার পেয়েছেন কঙ্গনা। এবার তার পাওয়া পুরস্কারের তালিকায় যুক্ত হল পদ্মশ্রীর মত সম্মান। গত ১৫ বছরে চার চারটে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন এই অভিনেত্রী। এত কম সময়ে কোন অভিনেতা অভিনেত্রী এত পুরস্কারের অধিকারী হননি। সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি ভবনে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এই অভিনেত্রীর হাতে তুলে দিলেন ‘পদ্মশ্রী’।

পদ্মশ্রী পাওয়ার পরেই সেই সমস্ত মানুষদের মুখের উপর সপাটে জবাব দিলেন যারা সবসময় তাকে কটাক্ষ করে থাকেন। তিনি বলেছেন, সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন কারণে অনেকেই তাকে অপমান করেছেন বা সবসময় করেন। তার এই পদ্মশ্রী মুখ বন্ধ করবে অনেকের।

রাজনৈতিক হোক বা বিনোদন যেকোনো ধরনের বিষয়ে নিজের স্পষ্ট মতামত জানাতে কখনো পিছপা হন না এই অভিনেত্রী। নিজের মন্তব্যের জন্য তাকে প্রায়ই নেটদুনিয়ায় বিভিন্ন তারকাদের পাশাপাশি নেটিজেনদেরও কটাক্ষের শিকার হতে হয়। সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে অভিনেত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে এসব করেও থামানো যায়নি অভিনেত্রীকে। পদ্মশ্রী পাওয়ার পরেই সেই সমস্ত কটাক্ষের জবাব দিলেন তিনি।

পদ্মশ্রী পাওয়ার পর অভিনেত্রী বলেছেন, দেশের পরিস্থিতির কথা ভেবেই এমন মন্তব্য করেন তিনি। এখন তার বিরুদ্ধে অনেক কেস রেজিস্টার রয়েছে। তিনি এও বলেন, অনেকেই তাকে জিজ্ঞেস করেন যে, কেন এই ধরনের মন্তব্য তিনি করেন? এটা তার কাজ নয় বলেই মত সকলের। তিনি বলেছেন তাকে যদি প্রশ্ন করা হয় তিনি এসব করে কি পান? তাহলে তার উত্তরে তিনি বলবেন, “এই পদ্মশ্রীই তাদের উত্তর। এটা অনেকের মুখ বন্ধ করবে এবার।”

তিনি আরো বলেন, “শিল্পী হিসেবে এতদিন অনেক পুরস্কার, সম্বর্ধনা, ভালবাসা পেয়ে এসেছি। কিন্তু এই প্রথম, ভারত সরকারের তরফে একজন দায়িত্ববাণ নাগরিক হওয়ার পুরস্কার পেলাম। আর আমি এরজন্য ঋণী সরকারের কাছে।”

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kangana Thalaivii (@kanganaranaut)

কঙ্গনা রানাউত খুব কম বয়সেই নিজের ফিল্মি কেরিয়ার শুরু করেছিলেন। ৮-১০টা ছবি করার পর তিনি সাফল্যের মুখ দেখেছিলেন। তিনি কখনোই কোন প্রসাধনী দ্রব্যের বিজ্ঞাপন করেননি। তিনি বড় প্রযোজনা সংস্থার ব্যানারে ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির অভিনেতাদের বিপরীতেও কখনো অভিনয়ও করেননি। আইটেম ডান্সার হিসেবেও কোন ছবিতে কাজ করেননি তিনি। নিজের সাফল্য নিয়ে উচ্ছ্বসিত হওয়ার বদলে সব সময় প্রতিবাদী মূর্তি ধারণ করে এসেছেন তিনি। তিনি বলেছেন, তিনি তার এই প্রতিবাদী সত্ত্বার জন্যই ইন্ডাস্ট্রিতে অতিরিক্ত টাকা কামানোর বদলে একাধিক শত্রু বানিয়ে ফেলেছিলেন। তবে বর্তমানে তার এই পদ্মশ্রী সেইসব মানুষগুলোর শত্রুতার জবাব।

সম্প্রতি অভিনেত্রী এই সম্মানের জন্য সরকারকে এবং সকল দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। কঙ্গনা রানাউত ছাড়াও কারাণ জোহার, একতা কাপুর, বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সবিতা যোশি এবছর এই সম্মানে ভূষিত হয়েছেন।

Back to top button