বলিউড

আরো একবার বাংলার মুখ উজ্জ্বল হলো সারেগামাপা’র মঞ্চে, সারেগামাপা ২০২১ জিতলেন আলিপুরদুয়ারের নীলাঞ্জনা রায়

অবশেষে শেষ হলো এতদিনের অপেক্ষা। ২০২১ সারেগামাপার বিজয়ের ট্রফি হাতে নিলেন বাংলার মেয়ে নীলাঞ্জনা। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে হইচই পড়ে গিয়েছে নীলাঞ্জনাকে নিয়ে। হাজার হাজার অনুরাগে নীলাঞ্জনাকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে তার এই সাফল্যের জন্য। দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে নিলেন হুগলির রাজশ্রী বাগ এবং তৃতীয় স্থান দখল করে নিলেন শরৎ শর্মা। বিজয় ট্রফির সাথে সাথেই নীলাঞ্জনা পেল মারুতি সুজুকির তরফ থেকে একটি গাড়ি।

গত বছর অক্টোবর মাস থেকে শুরু হয়েছিল সারেগামাপা দেশের বিভিন্ন কোনা থেকে উঠে আসা প্রতিযোগিরা এখানে নিজেদের গান এর প্রতিভা তুলে ধরেছিল। এবারের সারেগামাপা তে বাংলা থেকে এসেছিল অনেক প্রতিযোগী। শুরু থেকেই এই শো তে নানান রকম চমক ছিল দর্শকদের জন্য। সেই সাথে উপস্থিত ছিলেন বাংলার ছয়জন প্রতিযোগী। স্নিগ্ধজিৎ ভোমিক, অনন্যা চক্রবর্তী, নীলাঞ্জনা রায়, কিঞ্জল চট্টোপাধ্যায়, দীপায়ন বন্দ্যোপাধ্যায় আর রাজশ্রী বাগ।

তবে মাঝপথেই আউট হয়ে যেতে হয় কিঞ্জল কে এবং ফাইনাল রাউন্ড এর কয়েক দিন আগেই ছিটকে যান দীপায়ন। এরপর ফাইনাল পর্বে পৌঁছায় স্নিগ্ধজিৎ, অন্যান্য, রাজশ্রী ও নীলাঞ্জনা সাথে সঞ্জনা ভাট ও শরৎ শর্মা। সঞ্জনা ভাট ছিলেন দুই মেয়ের মা। গানের তামিলও সেভাবে নেওয়া হয়নি কোনদিনও। কিন্তু নিজের ইচ্ছেশক্তির জেরে প্রথম থেকেই তিনি ছিলেন বিচারকদের ফেভারিট। অন্য দিকে, শরৎ শর্মা গান গাইতেন জগ্রাতায়। সারেগামাপা তে এসে শরৎ বুঝিয়ে দিয়েছেন প্লে ব্যাক থেকে শুরু করে স্টেজ শো, সবই তাঁর কাছে জলভাত।

দারুন জমজমাট ভাবেই ঐদিন ওই অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। বিচারকদের মধ্যে শঙ্কর মহাদেবন এবং বিশাল দাদলানিও ঐদিন মঞ্চে পারফরমেন্স করেন। এছাড়াও নিজেদের গান দিয়ে দুইজন প্রয়াত সংগীতশিল্পী বাপ্পি লাহিড়ি ও লতা মঙ্গেশকরকে শ্রদ্ধাও জানান।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by NEELANJANA RAY (@neelanjanaray)

Back to top button