বলিউড

“জলদি করো! আমি ডিনার নিয়ে অপেক্ষা করছি” – লাইভে ব্যস্ত বলিউডের হ্যান্ডসাম হাঙ্ক রণবীর, স্বামীকে তাড়া দিয়ে লাইভের কমেন্টেই রাতের খাবার খেতে ডাকছেন দীপিকা! সংসার ভাঙার জল্পনায় রীতিমত জল ঢেলে দিলেন পিকু

মাঝখানে সোশ্যাল মিডিয়া উত্তাল হয়েছিল এই গুঞ্জনে যে দীপিকা আর রণবীরের সংসার বোধ হয় এবার ভাঙছে। তার কারণ তাঁদের মধ্যে নাকি একটি বিশাল বড় ঝামেলা চলছে। এমনকি কেউ কেউ দাবি করেন অভিনেত্রীর অসুস্থতা এই সংসার ভেঙে যাওয়ার কারণ। আবার কেউ বলেন ঝামেলা হওয়ার কারণেই নার্ভাস ব্রেক ডাউন হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে অভিনেত্রীকে। তবে এই সব ধারণা একেবারে ভুল প্রমাণ করে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী নিজেই। মেগান মার্কেলের পট কাস্ট এর শোতে দীপিকা আবার দেখিয়ে দিলেন তাঁদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেকার সম্পর্ক কতটা ভালোবাসা পূর্ণ। অভিনেত্রী পডকাস্টে বলেন, “আমার বর এক সপ্তাহ ধরে ছিল একটা মিউজিক ফেস্টিভ্যালে। এই সবে বাড়ি ফিরল। আমি নিশ্চিত ও আমার মুখ দেখলে খুব খুশি হবে”।

গত শুক্রবার ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসেছিলেন বলিউডের এই হ্যান্ডসাম। তাঁর সাথে ছিলেন র‍্যাপার স্লো চিতা। রাস্তার চলতি পথে জ্যামে আটকে যান তাঁরা। আর সেখান থেকেই লাইভে আসতে দেখা যায় দুজনকে একসাথে। গাড়িতে বসেই লাইভ লাইভে এসে “অল আই নিড” গাইছিলেন দুজনে। যদিও সেখানেই দুজনের স্ত্রীই কমেন্ট করেন। তার মধ্যে দীপিকার কমেন্ট বেশ নজরকারা। অভিনেত্রী স্বামীকে একেবারে সাধারণ স্ত্রীর মতো সোজাসুজি জিজ্ঞাসা করেন কতক্ষন লাগবে তাঁর বাড়ি ফিরতে। কমেন্টে স্পষ্ট লেখেন, “জলদি করো! আমি ডিনার নিয়ে অপেক্ষা করছি”। আবার একেবারে গিন্নির মত অভিনেত্রী জিজ্ঞাসাও করেন যে কোন সিগনালে আটকে রয়েছেন রণবীর। এরপরই রণবীর নিজের ফোনে ব্যাক ক্যামেরা করে চারিপাশের আটকে থাকা গাড়ি এবং সিগন্যালটি দেখান। এরপরেই দীপিকা আরো একটি কমেন্ট করেন। “ওকে। আমি যাচ্ছি এবার ডিনার রেডি করে রাখতে”। অন্যদিকে র‌্যাপার স্লো চিতার স্ত্রী হলেন অভিনেত্রী শ্বেতা ত্রিপাঠী। রণবীর এবং নিজের স্বামী স্লো চিতার উদ্দেশ্যে শ্বেতা লেখেন, “অনেক ভালোবাসা”।

রণবীর আর দীপিকার সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা বেশ হতাশাগ্রস্ত হয়েছিলেন এই তারকা জুটির অনুরাগীরা। কিন্তু একে অপরের প্রতি যে প্রেম অভিনেতা-অভিনেত্রী আবার দেখালেন সোশ্যাল মিডিয়ায় সবার সামনে সেটাই রীতিমত মুগ্ধ হয়েছেন এই তারকা জুটির ভক্তরা। সেটা কমেন্ট সেকশন দেখলে স্পষ্ট। একজন লিখেছেন, “ওমা এরকম তো আমার বউও করে! আমার তো খুব কিউট লাগল জিনিসটা”। আরেকজন লেখেন, “দীপিকা ডিনার রেডি করছে, ভাবতেই কেমন লাগছে! একমাত্র রণবীরই এটা উপভোগ করার সুযোগ পান যদিও”। প্রসঙ্গত রণবীর আর দীপিকার বিয়ে হঠাৎ করে হয়নি। বিয়ের আগে তাঁদের মধ্যে ছিল সাত বছরের প্রেমের সম্পর্ক। সে সম্পর্কের পরিনিতি পায় ২০১৮ সালের ১৪ ই নভেম্বর। এদিন তাঁরা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। প্রসঙ্গত রণবীরকে শেষবার দেখা গিয়েছিল, জয়েশভাই জোরদার সিনেমায়। এছাড়াও এখন অভিনেতার হাতে কাজ রয়েছে সার্কাস, রকি অউর রানি কি প্রেম কাহানি সিনেমার। অন্যদিকে দীপিকাকে শেষবারের জন্য দেখা গিয়েছিল, শকুন বত্রা পরিচালিত ‘গেহরাইয়াঁ’-য়। আবার অভিনেত্রী পর্দায় ফিরছেন শাহরুখ খানের বিপরীতে পাঠান ছবি দিয়ে।

Back to top button