বলিউড

কপিল শর্মা শো এর মঞ্চে দাঁড়িয়ে গান গাইতে দেওয়া হচ্ছে না পবনদ্বীপকে, ইন্ডিয়ান আইডলের বাকি প্রতিযোগীদের ওপর ক্ষেপে উঠলো পবনদ্বীপ ভক্তরা

সম্প্রতি ইন্ডিয়ান আইডল সিজন ১২ প্রতিযোগিরা দা কাপিল শর্মার মঞ্চে উপস্থিত ছিল। ইন্ডিয়ান আইডলের শেষ ছয় জন ফাইনালিস্ট হাজির হয়েছিল দা কাপিল শর্মার মঞ্চে এবং তাদের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন নেহা কাক্কার এবং টনি কাক্কার। আর এই বিশেষ অতিথিদের নিয়েই গান, হাসি, ঠাট্টা, মজা, গল্প এর আসর বসে। এমনকি অরুনিতা এবং পবনদ্বীপ এর সম্পর্ক নিয়েও খুনসুটিতে মেতে ওঠে সকলে।

ইন্ডিয়ান আইডলের গত সিজনে বিজয়ী হয়েছিল উত্তরাখণ্ডের ছেলে পবনদ্বীপ রাজন এবং দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে নিয়েছিল বাংলার মেয়ে অরুনিতা কাঞ্জিলাল। নিজেদের গানের মাধ্যমে দর্শক এবং বিচারকদের মন জয় করেছিল এই জুটি তবে ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে গড়ে উঠেছিল এই দুজনের মধ্যে একটি সুপ্ত সম্পর্ক। যা নিয়ে বেশ চর্চা চলেছিল হিন্দি ইন্ডাস্ট্রির মহলে।

এবারে আবারো বেশ কয়েক সপ্তাহ পরে অরুনিতা এবং পবনদ্বীপকে একই মঞ্চে উপস্থিত হতে দেখা গিয়েছে। এই দিন কাপিল শর্মা শো তে এসে পবনদ্বীপ বাদলাপুর ছবির জনপ্রিয় গান ‘যো ভেজি থি দুয়া’ গেয়ে উঠেছিল। তবে তার ইন্ডিয়ান আইডলের বন্ধুরা তাকে কিছুতেই গান গাইতে দিচ্ছিলে না সকলেই পেছন থেকে ভেঁপু বাজিয়ে পবনকে বিরক্ত করে যাচ্ছিল। আর এতেই দর্শকেরা প্রচন্ডভাবে ক্ষিপ্ত হয়েছে প্রতিযোগীদের উপরে।

তাদের দাবি পবনদ্বীপকে কেন তারা গান গাইতে দিচ্ছে না। যদিও এই ব্যপারটা পুরোটাই মজার ছলে করেছে প্রতিযোগিরা। পবনদীপের সঙ্গে খুনসুটি ভরা সম্পর্ক রয়েছে সকলের। সকলেই তারা খুব ভালো বন্ধু এবং পবনদ্বীপের সঙ্গে তারা মজাই করেছিল। তবে দর্শকেরা বিশেষ করে পবনদ্বীপ ভক্তরা এই ব্যাপারটিকে একেবারেই মজা হিসেবে নিতে পারেনি।

তবে এতো হৈ হট্টগোলের মাঝেও পবনদ্বীপ নিজের লক্ষ্য থেকে সরে যায়নি। একেবারে সঠিক সুর দিয়ে গানটি গেয়ে চলেছিল। আবারো পবনদ্বীপ নিজের গানের মাধ্যমে দর্শকদের মুগ্ধ করেছে কাপিল শর্মা শো এর মঞ্চে। শো তে উপস্থিত প্রতিটি দর্শক এবং অর্চানা পুরান সিংহ করতালির মাধ্যমে পবন এর গানের প্রশংসা করেছেন।

ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চ থেকে বিজয়ী হিসেবে বেরোনোর পরে পবনদ্বীপ স্বয়ং হিমেশ রেশমি সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়েছে। ইতিমধ্যেই হিমেশ রেশমির একটি অ্যালবামে গান গেয়েছেন পবন এবং অরুনিতা দুজনেই, যা ইতিমধ্যে দর্শকের সামনে এসেছে এবং দর্শকেরা প্রচুর ভালোবাসা জানিয়েছে অরুনিতা এবং পবনদ্বীপকে।

Back to top button