বলিউড

ইন্ডিয়ান গট ট্যালেন্ট এর মঞ্চে এসে অসম্মানিত হলেন ২০২১ সালের মিস ইউনিভার্স হারনাজ সান্ধু, নেটিজেনদের কটাক্ষের মুখে পড়লেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি

বর্তমান সমাজে ট্রোল হলো একটি অত্যন্ত সাধারণ ব্যাপার। নিত্যদিনই বলিউড-টলিউড এবং অন্যান্য ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা-অভিনেত্রীরা নিজেদের নানান কর্মকাণ্ডের জন্য ট্রোল হয়ে থাকেন। আর সেই তালিকায় রয়েছেন বলিউডের অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি। স্বামী রাজ কুন্দ্রার কারণে হোক বা নিজের কিছু স্বভাবের কারণে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ার মাঝেমধ্যেই সমালোচনার শিকার হন। সম্প্রতি মিস ইউনিভার্স হারনাজ সান্ধুকে এড়িয়ে যাওয়ার জন্য ট্রোলের মুখে পড়তে হলো অভিনেত্রী কে।

সম্প্রতি জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘ইন্ডিয়ান গট ট্যালেন্ট’ এর বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হারনাজ। এই শো তে বিচারকের আসনে থাকেন শিল্পা, বাদশা, মনোজ মুন্তাশির ও কিরণ খের। সম্প্রতি এই শো এর একটি ভিডিওতে দেখা যায় যে হারনাজ নিজে এসে সকল বিচারকদের সঙ্গে আলাপ পরিচয় করছে। কিন্তু মিস ইউনিভার্স কে সামনে দেখেও পাত্তাই দিলেন না অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি। তিনি নিজের বোন শামিতা শেটি কে নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। হারনাজ তার দিকে এগিয়ে গেলে কিছুটা যেন অনিচ্ছা সত্ত্বেও হাত বাড়িয়ে দেন তার দিকে।

এই ভিডিও এই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পরে নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার হয়েছেন শিল্পা একাধিক নেটিজেন বলেছেন ‘আমাদের দেশের নাম উজ্জ্বল করেছে যে মেয়ে তার প্রতি এতোটুকু সম্মান দেখালো না এরা।’ অন্য আরেকজন লিখেছে ২১ বছর পর দেশের নাম উজ্জ্বল করলো হারনাজ তার প্রতি এত টুকু কৃতজ্ঞ নয় এরা অকৃতজ্ঞের মত ব্যবহার করছে। কোন ইচ্ছেই নেই হারনাজ এর সঙ্গে পরিচয় করা।’

উল্লেখ্য দীর্ঘ ২১ বছর পরের ভারত আবার পাঞ্জাবের মেয়ের হাত ধরে মিস ইউনিভার্স শিরোপা ফিরে পেয়েছে। এর আগে ২০০০ সালে শেষবারের মতো ভারতীয় দের নাম উজ্জ্বল করেছিলেন অভিনেত্রী লারা দত্ত। তারপরে দীর্ঘ ২২ বছর পর আবার হারনাজ নিয়ে আসলো সেই সম্মান। ইসরায়েলের এইলাটে অনুষ্ঠিত ৭০ তম মিস ইউনিভার্স ২০২১ প্রতিযোগিতায় নাম দিয়েছিলেন তিনি। সসম্মানে খেতাব এনেছেন ঘরে। প‍্যারাগুয়ে ও দক্ষিণ আফ্রিকার প্রতিযোগীকে হারিয়ে সেরার শিরোপা জিতে নেন হারনাজ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Miss Diva (@missdivaorg)

Back to top button