বাংলা সিরিয়াল

জনসম্মুখে মিঠাইয়ের হাতে উদুম মার খেতে হল উচ্ছে বাবুকে! কিন্তু কেনো? মুহুর্তের মধ্যে ভাইরাল হলো সেই ভিডিও

শেষ অব্দি মিঠাইয়ের হাতে মার খেতে হল উচ্ছে বাবুকে! অন স্ক্রিনে যেমন দুষ্টু মিষ্টির সম্পর্ক মিঠাই ও তার উচ্ছেবাবুর। অফস্ক্রিনে ঠিক তেমনই সম্পর্ক এই জুটির।

রথযাত্রা স্পেশাল উপলক্ষে চলছে জমজমাট পর্ব। এর আগের সপ্তাহে দেখা গিয়েছিল ডিভোর্স নিয়ে নানারকম দুষ্টু মিষ্টির এপিসোড। এবার সম্প্রচার হচ্ছে রথযাত্রা উপলক্ষে বিশেষ পর্ব। সেই বিশেষ পর্বে চমক দিয়ে দাদু ঘোষণা করেছেন, তিনি মিঠাইয়ের অন্যত্র বিয়ে ঠিক করে ফেলেছেন।

এদিকে মিঠাই এর সাথে সংসার করতে রাজি নয় উচ্ছেবাবু, আসলে তিনি বিয়ের এই ‘বোকা বোকা’ রীতিতেই বিশ্বাস করেন না। তার কথায়, “আমি একসাথে অনেক বছর থেকেও কোন বন্ধনে আবদ্ধ হবনা, আমি জানি। এই সমস্ত বিয়ের বন্ধন বলে কিছুই হয়না। এটা শুধুমাত্র বানানো একটা রীতি মাত্র।”

অবিশ্বাসী সিদ্ধার্থও মিঠাই এর অন্যত্র বিয়ের কথা শুনে মেনে নিতে পারেননি। তিনি প্রতিবাদ করে বলেন ও কিন্তু এখনো বিবাহিতা। বাড়ির লোক তাকে ভীতু বললে, মিঠাই সাথে সংসার করতে রাজি হয়ে যায় সিদ্ধার্থ।

তবে এই পুরোটাই দাদুর প্ল্যান ছিল, তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি কারোরই। শুধু বুঝতে পারেননি মোটামাথার সিদ্ধার্থ। জেদের বশে একমাস স্বামী-স্ত্রী হিসাবে থাকার চ্যালেঞ্জ মেনে নিয়েছেন। জোর গলায় বলেছেন, “আমি একমাস ওর সাথে থেকে প্রমাণ করে দেবো যে বিয়ের বন্ধন বলে কিছু হয়না।”

ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে এসেছে নতুন প্রোমো। নতুন প্রমো সামনে আসায় দেখা যাচ্ছে, গল্পের একদম মোড় ঘুরিয়ে সম্প্রচারিত হতে চলেছে ‘ডিভোর্সের পর ফুলশয্যা’ এপিসোডটি। দেখার জন্য দর্শকেরা উদগ্রীব হয়ে আছেন।

এরই মাঝে সম্প্রতি একটি ভিডিও সামনে এসেছে যেখানে মিঠাই ও সিদ্ধার্থের অফস্ক্রিন দুষ্টু মিষ্টি ঝগড়া মুহূর্ত প্রকাশ পেয়েছে। একে অপরের সাথে ঝগড়া করছেন, মিঠাইকে রীতিমত লেকপুলিং করা হচ্ছে। মিঠাই রেগে গিয়ে অভিনেতাকে চিমটি কাটলেন, মারলেন এবং কত কিছুইনা করলেন।

তবে চিমটি কাটলে যে লাগে সেটা একেবারেই অস্বীকার করেছেন অভিনেতা। তাই কাজেই মিঠাই আরো রেগে গিয়ে অভিনেতা কে মারার জন্য হাতুড়ি খুঁজতে থাকেন। তবে ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে অভিনেতা মজা করে বলেন, ও এবার হাতুড়ি তুলতে গিয়ে পড়ে যাবে। এই শুনে মিঠাই আরো তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠে।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!
Back to top button