বাংলা সিরিয়াল

মিঠাই নয়! উচ্ছেবাবু বাস্তবে বিয়ে করতে চলেছে অন্য কাউকে, তবে কে সেই পাত্রী? উঠে এলো এক চাঞ্চল্যকর তথ্য

“প্রেম যে কাঁঠালের আঠা, লাগলে পড়ে ছাড়ে না”, তা বহু যুগ যুগ ধরে মানুষ জানে। যতই মুখে বলা যাক না কেন প্রেম বলে কিছু হয়না কিংবা ভালোবাসা বলে কিছু হয়না অথবা বিয়ের বন্ধন বলেও কিছু হয়না, তা কিন্তু বাস্তবে মেনে নেয়া খুবই কঠিন। অবশেষে এই কঠিন সত্যের কাছে হেরে যেতে বাধ্য হলেন মিঠাইয়ের উচ্ছেবাবু।

বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হতে চলেছেন মিঠাই এর আদৃত রয়। চলতি বছরের নভেম্বর মাসেই বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন অভিনেতা। অভিনেতা বরাবরই নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে একদম স্পিকটি নট। বর্তমানে অভিনেতা মিঠাই ধারাবাহিকে সিদ্ধার্থের চরিত্রে অভিনয় করছেন। মিঠাই এ অভিনেতা বিয়ের বন্ধনে বিশ্বাসী নন।

আদৃত অভিনীত ধারাবাহিক ‘মিঠাই’ গত কয়েক মাস ধরে টিআরপি লিস্টে সর্বোচ্চ স্থান ধরে রেখেছে। একের পর এক রেকর্ড ভেঙে প্রত্যেক সপ্তাহে বেড়েই চলেছে রেটিং। মিঠাই দেখেন না এমন দর্শক খুব কম পাওয়া যায়।

বেশ কিছুদিন ধরে মিঠাই ও সিদ্ধার্থের ডিভোর্স কেস দর্শকের মুখে মুখে শোনা যাচ্ছিল। ধারাবাহিকটি দেখতে দেখতে এতটাই আসক্ত হয়ে গিয়েছেন দর্শক তারাও চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন তাদের ডিভোর্স নিয়ে। তবে নতুন প্রমো সামনে আসায় দেখা যাচ্ছে, গল্পের একদম মোড় ঘুরিয়ে সম্প্রচারিত হতে চলেছে ‘ডিভোর্সের পর ফুলশয্যা’ এপিসোডটি।

তবে ধারাবাহিকে দেখা যায় রিল লাইফ এর সিদ্ধার্থ ওরফে আদৃত রয়, বিয়ের বন্ধনে বিশ্বাসী নন। তিনি জোর গলায় বলতে পারেন, “আমি একসাথে অনেক বছর থেকেও কোন বন্ধনে আবদ্ধ হব না আমি জানি। এই সমস্ত বিয়ের বন্ধন বলে কিছুই হয়না। এটা শুধুমাত্র বানানো একটা রীতি মাত্র।”

বাস্তবে কিন্তু এই বন্ধন অস্বীকার করার ক্ষমতা কারোর নেই। স্বয়ং অভিনেতা ও তা প্রমাণ করে দিলেন। জানা গেছে অভিনেতা গত এক দশক ধরে প্রেমিকা সুপ্রিয়ার সাথে সম্পর্কে আবদ্ধ রয়েছেন। সেই সম্পর্কের কথা অজানা নয় দুই পরিবারের মানুষদের ও।

আদৃত রয় এর হবু শ্বশুর মুম্বাইয়ের একজন খ্যাতনামা শিল্প পরিচালক। আপাতত টলিপাড়ায় বেশ কয়েক মাস ধরেই এই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। চুপিচুপি রমরমিয়ে অনেকদিন মাতামাতি চলছিল আদৃত রয় এর এই বিয়ে নিয়ে।

Back to top button