বাংলা সিরিয়াল

জিনি কে কীভাবে মারা হয়েছিলো, জিনির বাবা মায়ের খু;ন সব খোলসা করে রহস্য ভেদের দিকে এগোচ্ছে লালকুঠি! ‘লালকুঠি মেন কনসেপ্টে ঢুকে গেছে দেখে গায়ে কাঁটা দিচ্ছে’ বলছেন নেটিজেনরা!

জি বাংলা রহস্য রোমাঞ্চ ধারাবাহিক লালকুঠিতে একটু একটু করে রহস্য ভেদ হচ্ছে। ১২ বছর আগে জিনির বাবা-মাকে পুড়িয়ে মারা হয়, এই দৃশ্য দেখে পাগল হয়ে যায় জিনির বড় দিদি, অন্যদিকে জিনি বাবা-মাকে বাঁচাতে যাবে এমন সময় চারজন গুন্ডা তার পিছু নেয়। তারপর জিনিকে তারা আক্রমণ করে এবং সবাই জানে জিনি মৃত। কিন্তু সেই ভয়ংকর আক্রমণের পরেও জিনি বেঁচে গিয়েছিল, এবং ১২ বছর ধরে নিজেকে তৈরি করেছিল একটু একটু করে প্রস্তুত করে আবার ফিরে আসার এবং বাবা মায়ের মৃত্যুর পিছনে বিক্রমদের ফ্যামিলির কে লুকিয়ে আছে তাকে সনাক্ত করে শাস্তি দেওয়ার।

জিনি ১২ বছর পর ফিরে এলো অনামিকা রূপে! অনামিকার বাবা-মা যারা তারা আসলে জিনির কাকু কাকিমা। সবাই মিলে প্ল্যান করে অনামিকাকে বিক্রমের সাথে বিয়ে দেয়। এরপর অনামিকা নিজের প্ল্যানের দিকে এগোতে থাকে এবং নকল জিনিকে বাড়িতে নিয়ে আসে। নকল জিনি বাড়িতে আসে এবং সকলকে জানাই যে সে জিনি। নিজেকে জিনি হিসেবে প্রমাণ করতে সে সমস্ত প্রমাণ দিতে থাকে একটু একটু করে।

কিন্তু এই জায়গায় দাঁড়িয়ে নকল জিনি এবং অনামিকার বাবা-মার মনে হয় অনামিকা আসলে তার লক্ষ্য তার প্রতিশোধ সব ভুলে গেছে সে শুধু বিক্রমকে নিয়েই ভাবছে। অনামিকা তখন নকল জিনি কে বলে সে কিছুতেই তার অতীত ভুলতে পারবে না সে প্রতিদিন এই অতীতের কথা মনে করে কষ্ট পায়। তারপর সে তার অতীতের গল্প বলে যেখানে দেখানো হয় একবার দুবার নয় প্রায় ১৪ বার ছুরি চালানো হয়েছিল তার ওপর! কী নৃশংস ভাবে তাকে খুন করার চেষ্টা করা হয়েছিল কিন্তু তবুও সে বেঁচে গিয়েছিল।

একজন ভক্ত এই পর্ব দেখে লিখেছেন, “লালকুঠির আজকের ইপিসোড দারুণ লাগলো। মেইন কন্সেপ্টে চলছে এখন আজকের ইপিতে দেখানো হলো জিনির মা বাবা কে কিভাবে মারা হয়ছে আর জিনি কে কত নিষ্টুর ভাবে মারা হয়ছে! জিনির সিন টুকু দেখে খুব খারাপ লাগছে ”

Back to top button