বাংলা সিরিয়াল

‘মিঠাই’ ম্যাজিকের সামনে খড়কুটোর মতো উড়ে গেল ‘ধুলোকণা’! TRP-র লড়াইয়ে এবারো Zee বাংলার কাছে হেরে গেলো Star জলসা

অপ্রতিরোধ্য মিঠাই। প্রত্যেক বৃহস্পতিবারই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে সিরিয়ালের কলাকুশলীরা। দুরুদুরু বুকে তাকিয়ে থাকে কখন এসে উপস্থিত হবে সেই টিআরপি রিপোর্ট কার্ড। দুপুরের দিকে সাধারণত প্রকাশিত হতে দেখা যায় লিস্ট। মিঠাই ধারাবাহিকটি শুরুর প্রথম থেকেই টিআরপি লিস্ট এর সর্ব সেরা স্থান দখল করে বসে আছে। সেই যে দখল করেছে তারপর থেকে আর কারো সাধ্য হয়নি তাকে সেই স্থানচ্যুত করার।দিনের পর দিন টিআরপি রেটিং বাড়িয়েই চলেছে ধারাবাহিকটি।

বিগত কয়েকমাসের মতই এই মাসের প্রথম সপ্তাহে আবারো প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছে মিঠাই। তবে আগের সপ্তাহের রেটিং এর চেয়ে এ সপ্তাহে রেটিং বেশ কিছুটা কমেছে। আগের সপ্তাহে রেটিং ছিল ১২ পয়েন্টের উপরে। এ সপ্তাহে প্রাপ্ত রেটিং পয়েন্ট ১১.৫।

আগের সপ্তাহে সবাইকে চমকে দিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছিল পিছিয়ে পড়া ধারাবাহিক খড়কুটো। কিছুটা দর্শককে নিরাশ করে দিয়ে দ্বিতীয় স্থানচ্যুত হয়েছিল ধারাবাহিক অপরাজিতা অপু। তবে এ সপ্তাহে এই ধারাবাহিক নিজের স্থান ফিরে পেয়েছে। ৯.৪ রেটিং পয়েন্ট পেয়ে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে অপরাজিতা অপু।

তৃতীয় স্থানে জায়গা করে নিয়েছে সৌজন্যে এবং গুনগুনের খড়কুটো। এই ধারাবাহিকের প্রাপ্ত পয়েন্ট ৮.১। চতুর্থ পঞ্চম ষষ্ঠ এবং সপ্তম স্থানে রয়েছে যথাক্রমে ধারাবাহিক কৃষ্ণকলি, যমুনা ঢাকি, শ্রীময়ী, মহাপীঠ তারাপীঠ।

তবে অষ্টম স্থান অধিকার করেছে দুই ধারাবাহিক। এর মধ্যে রয়েছে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী চ্যানেলই। জি বাংলার জীবন সাথী ধারাবাহিক এবং স্টার জলসার দেশের মাটি ধারাবাহিক একই রেটিং পয়েন্ট পেয়ে নিজেদের স্থান অষ্টম হিসেবে বেছে নিয়েছে। নবম এবং দশম হয়েছে ধারাবাহিক রানী রাসমণি এবং গঙ্গারাম। যথাক্রমে প্রাপ্ত পয়েন্ট ৬.৫ এবং ৬.২।

তবে গত সপ্তাহে দশের মধ্যে সদ্য সম্প্রচারিত ধারাবাহিক স্থান হলেও এই সপ্তাহে দশের এর মধ্যে স্থান হয়নি তার। মানালি এবং ইন্দ্রাশিষ রায় অভিনীত এই সিরিয়ালের আপাতত প্রাপ্ত পয়েন্ট ৫.৮।

অন্যদিকে মন ফাগুন এবং শ্রী কৃষ্ণভক্ত মীরা এই দুটি ধারাবাহিক প্রথম সপ্তাহে তেমন কোন প্রভাব ফেলতে পারেনি টিআরপি লিস্ট এ। এই দুই সিরিয়ালের টিআরপি রেটিং পয়েন্ট এর গণ্ডি ৪ এর ঘর পেরোতে পারেনি।

এক ঝলকে দেখে নেয়া যাক কোন ধারাবাহিকের রেটিং পয়েন্ট এবং স্থান কত হলো:
মিঠাই- ১১.৫ (প্রথম),
অপরাজিতা অপু- ৯.৪ (দ্বিতীয়),
খড়কুটো- ৮.১ (তৃতীয়),
কৃষ্ণকলি- ৭.৪ (চতুর্থ),
যমুনা ঢাকি- ৭.১ (পঞ্চম),
শ্রীময়ী- ৬.৯ (ষষ্ঠ),
মহাপীঠ তারাপীঠ- ৬.৮ (সপ্তম),
দেশের মাটি- ৬.৬ (অষ্টম),
জীবনসাথী- ৬.৬ (অষ্টম),
রাণী রাসমণি- ৬.৫ (নবম),
গঙ্গারাম- ৬.২ (দশম)

Back to top button