Story

সালমান খানের সঙ্গে একেবারেই স্বাচ্ছন্দ্য ছিলেননা অভিনেত্রী ভাগ্যশ্রী, সালমান খানকে জড়িয়ে ধরতে হবে শুনে অঝোরে কেঁদে ফেলেছিলেন

বলিউডের হিট সিনেমা গুলির মধ্যে অন্যতম একটি হলো ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া’। সালমান খান এবং ভাগ্যশ্রী অভিনীত এই সিনেমা সেই সময় দারুণ হিট করে। এই সিনেমার মাধ্যমে ভাগ্যশ্রী এবং সালমান খানের কেমিস্ট্রির দারুণ জমে ছিল। এই সিনেমার পরই সালমান খানের জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ে।

কিন্তু এই একটি মাত্র ছবির পরই পৃথিবীকে বিদায় জানিয়েছিল ভাগ্যশ্রী। তবে এই সিনেমা করতে গিয়েই ভাগ্যশ্রীকে চোখের জলে ভাসতে হয়েছিল। সালমান খানকে জড়িয়ে ধরতে হবে শুনে কেঁদে ফেলেছিলেন তিনি।

সম্প্রতি জি কমেডির রিয়ালিটি শো তে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওই সিনেমার সুমন। সেদিন ওই শো তে এসেই এতদিনের পুরনো কথা ফাঁস করেন তিনি। হঠাৎ কি এমন হয়েছিল ভাগ্যশ্রীর যার জন্য এই ঘটনা ঘটেছিল। এক সাক্ষাৎকারে ভাগ্যশ্রী জানান অভিনয় জীবনে তার প্রথম ছবি ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া’। আর সেই ছবিতে অভিনয় করার সময় তার বয়স ছিল মাত্র ১৮।

তখন বাস্তব জীবনে ভাগ্যশ্রী একজনের প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন, ভবিষ্যতে তার সঙ্গে বিয়ের পরিকল্পনাও স্থির করে রাখেন তিনি। কিন্তু শুটিং ফ্লোরে এসে যখন তিনি জানতে পারেন যে সকলের সামনে স্ক্রিনে তাকে সালমান খানকে জড়িয়ে ধরতে হবে, তখন তিনি বেশ চিন্তায় পড়ে যান। এছাড়াও তিনি জানান এর আগে তিনি কখনও কোনো পুরুষকে এভাবে জড়িয়ে ধরেননি তাই তিনি ভয়ে, টেনশনে কেঁদে ফেলেছিলেন।

ভাগ্যশ্রীর কান্না দেখে সেটের সকলেই বেশ চিন্তিত হয়ে পরে। সকলে মিলে তাকে বোঝানোর চেষ্টা করে যে শুধুমাত্র ছবির জন্যই ওই সিকোয়েন্স এবং সেটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ। অবশেষে ছবির নায়ক অর্থাৎ সালমান খান নিজেই ভাগ্যশ্রী কে অনেক অনুরোধ করে বোঝান এবং শেষ অবধি বুঝতে পারেন তিনি। শুধুমাত্র ভাগ্যশ্রীর কথা ভেবেই ওই সিনে চুমুর অংশ বাদ দিয়ে দেন ডিরেক্টর।

Back to top button