লোকসভাতে ফল না পেয়েও আবারও মা তারার দর্শনে অনুব্রত, চেয়ে বসলেন তৃণমূলের ২২০টি আসন

বরাবরই মা তারার ভক্ত বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল৷ ভোটের আগে প্রার্থনা জানাতে কখনই ভোলেন না তিনি৷ লোকসভা নির্বাচনের আগে তারা মায়ের কাছে চেয়েছিলেন ৪২টি আসনেই যেন তৃণমূল জয়লাভ করে৷ তারা তার কাছে মায়ের সমান! তবে সেবার আর ছেলের কথা রাখেননি মা তারা৷ সন্তানও আর অভিমান করে নেই৷

বিধানসভার প্রাক্কালে অনুব্রতর দল সংকটাপন্ন৷ একের পর এক হেভিওয়েট নেতারা ইস্তফা দিচ্ছেন৷ এই পরিস্থিতিতে অনুব্রত ছুটে গেলেন তারাপীঠে৷ মায়ের কাছে এবার চেয়ে বসলেন ২২০টি আসনে তৃণমূলের জয়লাভ৷ বৃহস্পতিবার অনুব্রত মণ্ডল গিয়েছিলেন তারাপীঠে,দেশ আর দলের মঙ্গলকামনা করে পুজো দিলেন৷ লোকসভা ভোটে মা তারা তার প্রার্থনা শোনেনি,তবে এবারে বিধানসভাতে যাতে কথা রাখেন মা তারা তারই চেষ্টায় অনুব্রত৷ লোকসভাতে আশানুরূপ অর্থাৎ প্রার্থনানুযায়ী ফল পাননি তিনি৷ একথা জিজ্ঞেস করলে নিরুত্তর থাকেন বীরভূমের জেলা সভাপতি৷ শুধু বলেন,”একেই বৃহস্পতিবার,পয়লা পৌষ ,কয়েক বছর পর এমন বিশেষ দিন এসেছে৷” আর এই বিশেষ দিনটিকেই হেলায় নষ্ট করতে চাননি অনুব্রত৷

বিধানসভাতে যাতে ২২০টা আসনেই তৃণমূল জেতে তাই ই এদিন মায়ের কাছে চাইলেন অনুব্রত৷ পাশাপাশি কানাঘুষো শোনা গেছে যে অনুব্রত মণ্ডলকে দিল্লি থেকে ফোন করা হয়েছিল,বিজেপিতে যোগদানের আহ্বানও জানানো হয়েছে বলে দাবী জানান মুখ্যমন্ত্রী৷ উত্তরবঙ্গের সভা থেকে তার মুখে শোনা যায়ি একথা৷

তবে এবিষয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া জানাননি অনুব্রত মণ্ডল৷ তার সাফ কথা,”মুখ্যমন্ত্রী যা বলেছেন তার বাইরে আমি কিছু বলবো না৷তিনিই শেষ কথা৷” এর মধ্যে বেশ খুশিই ছিলেন অনুব্রত! হলুদ পাঞ্জাবী আর সাদা পাজামা পড়ে আজ তারা মায়ের কাছে পুজো দিতে দেখা গেল তাকে৷ তার দাবী,মা তারা তাকে ২২০টা আসনেই জয়লাভ হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন৷