টলিউড

৩০ বছর বয়সেও বিকিনি থেকে শুরু করে শাড়ি সব পোশাকেই নিজেকে অসম্ভব সুন্দর ভাবে মেলে ধরেন সুপারস্টার শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, ভাইরাল হলো অভিনেত্রীর ইনস্টাগ্রাম রিল ভিডিও

বর্তমানে টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় এবং গ্ল্যামারেস অভিনেত্রী হলেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। বয়স ৪০ হলেও তার রূপ এবং গ্ল্যামার কিন্তু ঠিক একই রকম রয়েছে। বরং দিনে দিনে আরও সুন্দরী হয়েছে অভিনেত্রী। রূপ যেন ফেটে পড়ছে। তার এই সৌন্দর্যে অসংখ্য পুরুষ এমনিতেই ঘায়েল হয়ে যায়। সম্প্রতি চল্লিশে পা দিয়েছেন অভিনেত্রী। তবে এখনো তাকে দেখে বোঝার উপায় নেই যে তিনি ৪০ বছরের নারী। এখনো তিনি যে কোন অভিনেত্রীকে রূপের প্রতিযোগিতায় টেক্কা দিতে পারেন। তার জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে আর কিছুই বলার নেই। মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ার খবরের শিরোনামে উঠে আসেন তিনি। গত বছর তো বেশ চর্চায় ছিলেন।

বর্তমানে ছবির সংখ্যা কমে গিয়েছে তার, শেষবার তাকে দেখা গিয়েছিল ওম সাহা’র বিপরীতে ‘ভয় পেয়ো না’ ছবিতে অভিনয় করতে। আগামী দিনে মুক্তি পেতে চলেছে কুশল এবং দিতিপ্রিয়ার সঙ্গে তার পরবর্তী ছবি। এছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়াতে দারুন অ্যাক্টিভ থাকেন অভিনেত্রী। হামেশাই বিভিন্ন ফটোশুট করে থাকেন। আর সেই সমস্ত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ার দেওয়ালে আপলোড করেন। সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট থেকে একটি রিল ভিডিও আপলোড করেছেন শ্রাবন্তী। যেখানে অনেকগুলো রিল ভিডিও সংমিশ্রণে একটি ভিডিও বানানো হয়েছে। ভিডিওতে অভিনেত্রীকে কখনো বিকিনি লুকে কখনো ওয়েস্টার্ন লুকে আবার কখনো শাড়ি পড়ে দেখা গিয়েছে। সব পোশাকেই যেন অসম্ভব সুন্দরী অভিনেত্রী। নিজেকে দারুন ভাবে মানিয়ে চলেন সব পোশাকের সঙ্গে।

তার রিল ভিডিওতে অসংখ্য মানুষ শ্রাবন্তীর প্রশংসা করেছেন। প্রশংসার পাশাপাশি জুটেছে কটাক্ষও। অসংখ্য মানুষ অভিনেত্রীকে অভিনেত্রীর বয়স নিয়ে কটাক্ষ করেছে। কমেন্ট বক্সে লিখেছে ‘বুড়ো বয়সে ভীমরতি’। আবার অনেকে তার বৈবাহিক জীবন নিয়েও কটাক্ষ করেছেন। কিছুদিন আগেই ট্রোল নিউ মুখ খুলেছিলেন। ট্রোলের বিশেষ পাত্তা দেন না। তিনি মনে করেন তার জন্য ট্রোলারদের রোজগার হয়। পরপর তিনটি বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ার পর বর্তমানে অভিরূপ নাগ চৌধুরী সঙ্গে নাম জড়িয়েছে শ্রাবন্তীর। তবে এই বিষয়ে সম্বন্ধে এখনো পর্যন্ত মুখ খোলেননি। তার দাবি তারা দুজনেই খুব ভালো বন্ধু। তবে কিছুদিন আগেই এক সাক্ষাৎকার শ্রাবন্তী নিজের মুখে স্বীকার করেন যে অভিরূপ নাগ চৌধুরী তার স্পেশাল ফ্রেন্ড। সবসময়ই তাকে নিজের বিপদে আপদে পাশে পান।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Srabanti ❤️ (@srabanti.smile)

Back to top button