টলিউড

পুজোয় ‘নো’ মদ্যপান! পুজোয় নাকি নো ডায়েট! নো অ্যালকোহল অনলি মায়ের ভোগ, পুজোয় নিজের প্ল্যানিং নিয়ে মুখ খুললেন মিস্টার ইন্ডাস্ট্রি ওরফে প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী

আর মাত্র কয়েকটা দিন তারপরেই ষষ্ঠীতে দেবীর বোধন। আর এই পূজোকে ঘিরে বাঙালির ভর্তি প্ল্যান থাকে। দেদার খাওয়া দাওয়া, সুন্দর সুন্দর শপিং আর প্রচুর ঘোরার মত প্ল্যান বানিয়ে রাখেন বাঙালিরা। এই প্ল্যানের থেকে বাদ পড়েন না তারকারাও। সারা বছরের সিনেমার শুটিং, ওয়েব সিরিজের শুটিং, প্রমোশন এমন কি বিজ্ঞাপনের শুটিং এত সবকিছুর মধ্যে ব্যস্ত থাকেন তারকারা। কিন্তু পুজোর এই কটা দিন সবকিছু ভুলে পুজোর আনন্দে মেতে ওঠেন সকলে। তাই ওই কয়েকটা দিন নিজেদের নিয়ম ভঙ্গ করলে কোন ক্ষতি হয় না তাদের। এই তারকাদের মধ্যে টলিউডের মিস্টার ইন্ডাস্ট্রি অর্থাৎ প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী বললেন তাঁর পূজোর প্ল্যানিং।

৫৯ এর কোঠাতে দাঁড়িয়েও একেবারে চাঙ্গা তর তাজা যুবক অভিনেতা। জানা যায়, ডাবের জল, টকদই আর ব্ল্যাক কফি ছাড়া বুম্বা নাকি কিছু মুখেই তোলেন না। আর তাইতো অভিনেতার ফিটনেস টিপসকে একেবারে বেদবাক্য মনে করেন টলিউডের অনেক অভিনেতাই। তবে এবার অভিনেতা বললেন তাঁর পুজোর প্ল্যানিং সম্পর্কে।

সারাবছর ধরে স্যালাড, টক দই, ডাবের জল কিংবা হালকা খাবার খান আমাদের সকলের প্রিয় বুম্বা দা। কিন্তু দুর্গাপুজোর এই পাঁচ দিনের তিন দিনই তিনি মায়ের ভোগ খান। কিন্তু আবার এমন নয় যে ফিটনেস এর খেয়াল রেখে শুধুই খিচুড়ি ভোগ খান। খিচুড়ির সাথে তালিকায় থাকে পাঠার মাংসও। দেব এবং প্রসেনজিতের আপকামিং সিনেমা কাছের মানুষের প্রমোশনের একথা বললেন প্রসেনজিৎ।

দেখা গিয়েছিল সবজি বাজার করতে বেরিয়েছেন টলিউডের দুই খ্যাতনামা অভিনেতা। দেব এবং প্রসেনজিৎ জুটি বেঁধে সবজি বাজার করছেন। আর তখনই দেব প্রসেনজিৎকে প্রশ্ন ছেড়ে দেন যে, “তুমি নাকি সারাদিন খালি সালাদ খাও?” এ প্রশ্নের উত্তরে প্রসেনজিৎ জানান, “শশা, গাজর, টম্যাটো, লেটুস, ব্রকলি.. এগুলোই স্যালাডে বেশি করে খাই।”

এরপর এই অভিনেতা কে জিজ্ঞাসা করা হয় পুজোতে তিনি কি খান? অভিনেতা এক কথায় বলেন, “ভোগ”। তারপরে অভিনেতার সংযোজন, “বছর দুয়েক সব ঘেঁটে গিয়েছিল ঠিকই, তবে পুজোয় চেষ্টা করি নো ডায়েট। সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী এই তিনটে দিন মায়ের ভোগ মাস্ট! নবমীতে পাঁঠার মাংস, ভোগ আসে। এই তিন দিন ভোগ খাবই। তার জন্য রাত্রিবেলা হয়তো কিছু না খেয়ে পুষিয়ে নিই”। এই কথা শুনে অভিনেতাদের ইঙ্গিত করেই প্রশ্ন করেন যে – আর মদ্যপান?” তাতে প্রসেনজিতের উত্তর – “এক্কেবারে না..।”

Back to top button