বাংলা সিরিয়াল

“এখনকার নায়িকাদের মুখ দেখলে একটুও ভক্তি আসে না,” মহালয়াতে নায়িকাদের সাজসজ্জা দেখে এই মন্তব্য করে বসলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র

কদিন আগেই শুরু হল দেবীপক্ষ। পিতৃপক্ষের অবসান হয়ে মহালয়া দিন শুভ সূচনা হলো দেবীপক্ষের। আর মহালয়া মানেই বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রের কন্ঠে চণ্ডীপাঠ। ভোর চারটে বাজলেই ঘরে ঘরে রেডিও তে বেজে ওঠে মহিষাসুর মর্দিনী। এর পাশাপাশি বহু বছর আগে থেকেই শুরু হয়ে গেছে টেলিভিশনের চণ্ডীপাঠ দেখানোর অনুষ্ঠান। দূরদর্শনের সময় থেকে শুরু করে বর্তমানে এখনো চলছে সেই অনুষ্ঠান পর্ব। বর্তমানে যত চ্যানেলের সংখ্যা বাড়ছে তত বাড়ছে অনুষ্ঠানের সংখ্যা। আর সেই সমস্ত অনুষ্ঠানে সেজে উঠছেন চ্যানেলের বিভিন্ন নায়ক নায়িকারা। আর সেইসব নিয়ে বাড়ছে সমালোচনাও।

বেশ কয়েক বছর ধরেই বিভিন্ন চ্যানেলে মহিষাসুর মর্দিনির অনুষ্ঠান নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে। সঙ্গে তখনকার সময় এবং এখনকার সময় নিয়ে চলছে তুলনা। এবারে এই বিষয়টি নিয়ে সরাসরি কথা বললেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। তিনি অবশ্য আগেকার দিনের অনুষ্ঠানের পক্ষেই ছিলেন। তখনকার দিনে একটি চ্যানেলেই মহিষাসুরমর্দিনী দেখানো হতো। ছিল মেকআপ, অতিরিক্ত জাঁকজমক, ছিলনা VFX। কিন্তু তাতেও দর্শক সেই অনুষ্ঠান দেখে খুবই আনন্দ পেতেন। তাদের মন ভরে যেত সেই অনুষ্ঠান দেখে। কিন্তু এখনকার অনুষ্ঠানের সব কিছু থাকলেও নেই শুধু সিম্পলিসিটি।

দূরদর্শনের মহালয়ার অনুষ্ঠানের একটি ভিডিও লিংক শেয়ার করে শ্রীলেখা মিত্র লিখেছেন ‘না আর স্পেশ‍্যাল এফেক্টস দিয়ে ‘খামতি’ গুলো পূরণ করা যায় না। চ‍্যানেল এবং বাকিরা বুঝবেন কবে? আমাদের ছোটবেলার মা দূর্গা সেজেছিলেন সংযুক্তা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায় দূরদর্শনে। তাঁকে মানাত, তাঁর মুখের শ্রী ছিল মায়ের মতো। আপনাদের সেটা নেই।’ ‘দোষ আপনাদের নয়, সিস্টেমের। রাজনৈতিক এবং ক্ষমতার। আবার ভাববেন না দয়া করে আমাকে কোনোদিন মা দূর্গা হতে দেখেননি বলে আমি হিংসেতে বলছি আর ভাবলেও কী বা যায় আসে আমার আপনার বলুন? সাধারণত্বেরই সবসময় জয়জয়কার হয় এটা বুঝলে আমার ১৪ পুরুষের ভাগ‍্য।’

অভিনেত্রীর মতে আগেকার দিনে এত জাকজমক এত আয়োজন এত আড়ম্বর ছিল না কিন্তু সবকিছুর মধ্যে একটা সাধারণ নিজস্বতা ছিল। একটা সৌন্দর্য ছিল সবকিছুতে। তাই সেই সময়ে দর্শক বেশি উপভোগ করতে জিনিসগুলো। কিন্তু এখনকার দিনে সব জাঁকজমকের মধ্যে সেই সাধারণ ছোট ছোট ব্যাপারগুলো হারিয়ে গিয়েছে। এখনকার নায়িকাদের মুখ দেখলে একটুও ভক্তি আসেনা।

Back to top button