টলিউড

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নবান্নে দেখা করতে গেলেন জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, তবে কি এবার বুম্বাদা ও রাজনৈতিক ময়দানে নামতে চলেছেন?

৯০ দশক থেকে শুরু করে বর্তমান সময় পর্যন্ত টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে রাজত্ব চলেছেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। এখনো ঠিক একইভাবে দর্শকের মন জয় করে চলেছেন সকলের প্রিয় বুম্বাদা। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে তার নতুন ছবি ‘আয় খুকু আয়’ যেখানে অভিনেতার সঙ্গে দিতিপ্রিয়া কে অভিনয় করতে দেখা গেছে। বাবা মেয়ের একটি মিষ্টি গল্প তুলে ধরা হচ্ছে এই ছবির মাধ্যমে। তবে বুধবার দিন হঠাৎই নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎকার করতে গেলেন বুম্বাদা। ঠিক কি কারণে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ওই দিন দেখা করতে গেলেন তিনি তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। উল্লেখ্য বর্তমানে ছবি মুক্তির পর প্রচারের জন্য ব্যস্ত রয়েছেন প্রসেনজিৎ এবং সেই কারণেই নানান জায়গায় যেতে হচ্ছে তাকে তবে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কেন ব্যক্তিগতভাবে দেখা করতে গিয়েছিলেন বুম্বাদা এ প্রশ্নের উত্তর এখনো জানা যায়নি।

তবে কয়েকদিন আগে ফিরহাদ হাকিমের বাড়িতে তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। মন্ত্রীর বাড়ি থেকে বেরুনোর পরেই মিডিয়া থেকে ঘিরে ধরে। প্রশ্নের উত্তরে যদিও তিনি জানান যে ফিরহাদ হাকিম এবং প্রসেনজিৎ বহু দিন ধরেই একে অপরের বন্ধু এবং সেইজন্যই বন্ধুত্বের খাতিরে দুজন দেখা করেছেন। আর অন্যদিকে মুম্বাইয়ে বেশ কিছুদিন বাইরে ছিলেন সেজন্যই কলকাতায় ফেরার পর বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন প্রসেনজিৎ।

শেষ দু বছর ধরে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের রাজনৈতিক দলে যোগ দেওয়ার হিড়িক পড়েছিল। টলিউড ইন্ডাস্ট্রি বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীরা রাজনৈতিক বিভিন্ন দলে যোগদান করেছিলেন। যদিও অনেকে এদের মধ্যে দল পরিবর্তন করেছে। আবার কেউ কেউ রাজনৈতিক ময়দান ছেড়ে বেরিয়ে এসেছে। কিন্তু প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় কে কখনোই কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত থাকা থাকতে দেখা যায়নি। তিনি কখনোই সেরকম ভাবে কোন রাজনৈতিক দল নিয়ে কথা বলেনি সরাসরি। তবে বেশ কিছুদিন ধরে তৃণমূল কংগ্রেসের মন্ত্রী-সাংসদদের সঙ্গে তার আনাগোনা দেখে প্রশ্ন জেগেছে সকলের মনে।

Back to top button