টলিউড

এমন একটি জিনিস যা অভিনেত্রী রুক্মিণী মৈত্রের মন ভালো করে দিতে পারে, যেটা দেবও পারেনি আজ পর্যন্ত

খাবার যে কোন মানুষের মন ভালো করে দেয় এই কথাটা আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে শুনেছি। আসলেই খাবার যে কোন মুড বদলে দেবার ক্ষমতা রাখে। যদি আপনার মন কখনো খারাপ থাকে তাহলে আপনার পছন্দের খাবারটি মুহূর্তেই আপনার মন বদলে দিতে পারে। এবার এই কথাটি নিজেও স্বীকার করে নিলেন টলিউড অভিনেত্রী রুক্মিণী মৈত্র। অভিনেত্রী জানালেন দুনিয়ায় আর কোন কিছুই নেই যেটা অভিনেত্রীর মন ঠিক করতে পারে। একমাত্র খাবার ছাড়া। অভিনেত্রীর পছন্দের খাবারগুলি অভিনেত্রীর মুড মুহুর্তেই বদলে দিতে পারে। সাথে কিছুদিন আগেই রুক্মিণী নিজের সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টের দুটি ছবি পোস্ট করেছিলেন এবং ছবি দুটির সঙ্গে ক্যাপশনে তিনি লিখেছিলেন ‘খাবার আমাকে সমগ্র বিশ্বের সবচেয়ে সুখী মেয়ে করে তোলে! আগে এবং পরে দেখতে সোয়াইপ করুন!’

আর সামনেই বাঙালির প্রিয় উৎসব দুর্গোৎসব। আর দুর্গাপূজা মানেই পেট পুজো। বাঙালি ওই কটা দিন সমস্ত ডায়েট ভুলে গিয়ে নিজেদের পছন্দের খাবারগুলি খাওয়ার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েন। ওই কটা দিন কোন নির্দেশিকা মানেন না কেউ। আর দুর্গাপূজা মানে ফাস্টফুড রাস্তার ধারে স্ট্রিটফট গুলি জমিয়ে উপভোগ করা। ওই কটা দিন ডায়েটের কথা কেউই মাথায় রাখেন না। তাই রুক্মিনী ও পুজোর আগে ডায়েট ভুলে নিজের পছন্দের খাবারে পেয়ে দারুন খুশি।

খুব শীঘ্রই রুক্মিণী মৈত্রের আগামী ছবি আসতে চলেছে সকলের সামনে। ইতিমধ্যেই ছবির পোস্টার আমরা দেখে নিয়েছি। আগামী দিনের নটি বিনোদিনীর চরিত্রে দেখা মিলবে রুক্মিণীর। এছাড়ো আগামী দিনে কাগজের নৌকো ছবিতে কাজ করতে দেখা যাবে অভিনেত্রী কে। এই ছবিতে প্রথমবারের জন্য জিতের সঙ্গে স্ক্রীন শেয়ার করতে চলেছেন রুক্মিণী, ছবিটি পরিচালনা করছেন সৌভিক কুন্ডু।

বর্তমানে অভিনেত্রীকে আবার দেখা যাচ্ছে স্টার জলসার জনপ্রিয় নাচের রিয়েলিটি শো ডান্স ডান্স জুনিয়র সিজন থ্রি এর বিচারকের আসনে। দেবের পাশাপাশি তিনিও বিচারকের আসনে রয়েছেন এবার। তাই জন্য দর্শকদের উত্তেজনা আরো বেশি। দেব রুক্মিণীর জুটিকে একসঙ্গে বিচারকের আসনে দেখতে পেয়ে প্রত্যেকে খুশি। প্রথমবার রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত চ্যাম্প ছবির হাত ধরে দেব এবং রুক্মিণী জুটি বেঁধেছিলেন পর্দায়। পরবর্তীকালে সেই জুটি বাস্তবে জুটিতে পরিণত হয়। বর্তমানে অন স্ক্রিন অফ স্ক্রীন দুই জায়গাতেই চুটিয়ে প্রেম করছেন দুজন। তাদের কেমিস্ট্রি চোখে পড়ার মতো।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by RUKMINI MAITRA (@rukminimaitra)

Back to top button