টলিউড

ইন্দুবালা এবার টিভির পর্দায়! সাহিত্যের চরিত্র কে ফুটিয়ে তুলতে সাদা চুল, মুখে বয়সের ছাপ নিয়ে হাজির হচ্ছেন অভিনেত্রী শুভশ্রী! উচ্ছ্বসিত অভিনেত্রীর অনুরাগীরা

অবশেষে নিস্তব্ধতা ভাঙালেন অভিনেত্রী। হাতা খুন্তি সহযোগে সোজা ভাতের হোটেল নিয়ে দর্শকের সামনে উপস্থিত হবেন তিনি। বেশ কিছুদিন ধরেই জল্পনা শোনা যাচ্ছিল যে অভিনেত্রী এই ধরনের কনটেন্টের কিছু নিয়ে আসতে চলেছেন। এবার সেই অপেক্ষার অবসান ঘটলো। সমস্ত রকম জল্পনা শিলমোহর দিলে অভিনেত্রী শুভশ্রী নিজেই। মিডিয়ার সূত্রের খবর খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে জনপ্রিয় পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্য নির্মিত একটি ওয়েব সিরিজ। “ইন্দুবালা ভাতের হোটেল” নামক গল্পকে কেন্দ্র করে এই নামেই তৈরি হবে সেই ওয়েব সিরিজ। সেখানে মুখ্য চরিত্র অর্থাৎ ইন্দুবালার চরিত্র দেখতে পাওয়া যাবে অভিনেত্রী শুভশ্রী কে।

আমরা সকলেই জানি “ইন্দুবালা ভাতের হোটেল” মূলত একটি বাংলা উপন্যাস। লেখক কল্লোল লাহিড়ী। জানা গিয়েছে কল্লোল লাহিড়ী লিখিত এই বাংলা উপন্যাস “ইন্দুবালা ভাতের হোটেল”এর উপর ভিত্তি করেই তৈরি হবে এই ওয়েব সিরিজটি। তবে এটাও ঠিক অভিনেত্রী শুভশ্রী এর আগে ওয়েব সিরিজের কোন কনটেন্ট এ কাজ করেননি। এই ইন্দুবালা চরিত্রের হাত ধরেই ওয়েব সিরিজ জগতে পদার্পণ করবেন অভিনেত্রী। আর সেই ওয়েব সিরিজের পোস্টার অভিনেত্রী ইতিমধ্যেই তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন। আর তা দেখেই উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েছেন অভিনেত্রী অনুরাগীরা। সমগ্র উপন্যাসটিতে ইন্দুবালার সম্পূর্ণ জীবনটি তুলে ধরা হয়েছিল। জানা গিয়েছে ওয়েব সিরিজটিতেও মুখ্য চরিত্র ইন্দুবালার ১৫ থেকে ৭৫ বছর বয়স তুলে ধরা হবে।

সম্পূর্ণ ওয়েব সিরিজটি তুলে ধরা হবে মূলত একটি মেয়ের জীবন সংগ্রাম। এক মাতাল পুরুষের সাথে তার বিবাহ। বিবাহিত জীবনেও অশান্তি দুঃখ। তারপর একে একে তিন সন্তানের মা হওয়া। আর সে তিন সন্তান নিয়ে অল্প বয়সেই বিধবা হওয়া। তারপর পূর্ব পাকিস্তান যেদিন হলো বাংলাদেশ, সেদিনই ছেনু মিত্তির লেনে প্রথম আঁচ পড়বে ইন্দুবালা ভাতের হোটেলে উনুনে। আর এই ওয়েব সিরিজে ছেনু মিত্তির লেনের ইন্দুবালা ভাতের হোটেল ছুঁয়ে থাকে এক টুকরো খুলনা আর ইন্দুবালার ভাতের হোটেলের ইতিহাস ফুটিয়ে তোলা। মূলত মন ভারী করা এই গল্প তুলে ধরতে চলেছেন অভিনেত্রী।

প্রসঙ্গত বড় পর্দায় ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে এসছে অভিনেত্রীর দুটি কাজ। “হাবজি গাবজি” আর “ধর্মযুদ্ধ”। যদিও দর্শক এই দুটি ছবিতে অভিনেত্রী চরিত্রকে ঠিক পছন্দ করেননি। মোটকথা এই দুটি সিনেমাতে অভিনেত্রীর অভিনয় দর্শকের মনে ধরেনি। কিন্তু আমরা সকলেই জানি, বাংলা টেলিভিশনের অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন অভিনেত্রী হলেন শুভশ্রী। তাই দর্শকও আশা করছেন যে ইন্দুবালা চরিত্রের হাত ধরে হয়তো অভিনেত্রী নিজের সে জনপ্রিয়তা আবার ফিরে পাবেন। অভিনেত্রী থেকে দর্শকের ঠিক কতটা চাওয়া রয়েছে সেটা সোশ্যাল মিডিয়াতে দর্শকের প্রতিক্রিয়া থেকে স্পষ্ট। এবার শুধু এটাই দেখার যে অভিনেত্রী নিজের জনপ্রিয়তা ফিরে পেতে ঠিক কতটা সার্থক হন।

Back to top button