বলিউড

হানিমুনে গিয়ে সন্তানের জন্য রাখা স্ত্রীয়ের ‘ব্রেস্ট মিলক’ খেয়ে ফেলেছিলেন অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা, এবার স্ত্রী ফাঁস করলেন সব কথা

বলিউডের জনপ্রিয় জুটি গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হলো আয়ুষ্মান খুরানা এবং তার স্ত্রী তাহিরা কাশ্যপ। বলিউডে আয়ুষ্মান খুরানা যতটা সফল লেখিকা হিসেবে তার স্ত্রী তাহিরা ঠিক ততটাই সফল এবং জনপ্রিয়। বলিউডের অন্যান্য তারকাদের স্ত্রীদের তুলনায় তাহিরা একটু আলাদা কয়েক বছর আগেই তিনি মারণ রোগ ক্যান্সের কে হারিয়ে নিজের জীবন নতুন করে শুরু করেছেন তাহিরা দুই সন্তানের মা সন্তান জন্ম দেওয়ার পরেই তার ব্রেস্ট ক্যান্সার ধরা পড়ে মারণ রোগের সঙ্গে কঠিন লড়াই করে তারা নিজের জীবনকে নিয়ে নতুন ভাবে বাঁচতে শিখেছে। নিজের মাতৃত্বের জীবনকে নিয়ে তিনি একটি বই লিখেছেন যার নাম ‘দ্য সেভেন সিনস অফ বিয়িং এ মাদার’। সম্প্রতি সেই বইটি প্রকাশিত হয়েছে বই প্রকাশনার কথা নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানিয়েছেন তাহিরা।

নিজের বইটিতে তাহিরা নিজের মাতৃত্বের সময়ের বিভিন্ন ঘটনা সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন এমনকি সন্তান জন্ম দেওয়ার পর ৭ মাস বাদে তার জীবনে ঘটে যাওয়া একটি অদ্ভুত ঘটনার কথা ও নিজেই জানিয়েছেন তাহিরা যা দেখে দর্শকরা প্রত্যেকে অবাক হয়েছেন। সন্তান জন্ম দেওয়ার পর ছয় মাস পর্যন্ত স্তন্যপান করানোর পর তারা সিদ্ধান্ত নেয় এরপর থেকে আর সন্তানকে তিনি স্তন্য পান করাবেন না তার মতে একবার এই অভ্যাস হয়ে গেলে স্তন্যপানের অভ্যাস ছাড়ানো খুবই কঠিন যার ফলে তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন কিন্তু এই সিদ্ধান্তে তার বাড়ির লোকজন ঘোর আপত্তি জানায় তাকে বিভিন্ন বাজে মন্তব্য সম্মুখীন হতে হয়।

তাই জন্য ব্রেস্ট পাম্পের সাহায্য নেয় তাহিরা সন্তান জন্ম দেওয়ার সাত মাস পরে হানিমুনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তাহের এবং আয়ুষ্মান সন্তানকে বাড়ি দেখি তারা হানিমুনের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় সন্তানের জন্য তিনি বোতলে ব্রেস্ট মিল্ক রেখে গিয়েছিলেন কিন্তু এয়ারপোর্টে যেতে যেতেই সেই দুধ শেষ হয়ে যায়। এই ঘটনায় তাহিরা রীতিমতো চিন্তিত হয়ে পড়ে সন্তানকে নিয়ে।

অন্যদিকে মাঝেমধ্যেই তার ব্রেস্ট থেকে দুধ বেরিয়ে অন্তর্বাস ভিজে যেত যার কারণে তাকে বারবার ব্রেস্ট পাম্প করতে হতো আবার দুধ বার করে রাখলেই দুধ নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় ছিল। একদিন এরকমই ব্রেস্ট পাম্প করে দুধ সংগ্রহ করে একটি গ্লাসে রেখেছিলেন তাহিরা। আর সেই দুধ যখন তিনি সন্তানকে খাওয়াতে জাবানি ঠিক তখনই তাহিরা লক্ষ করেন যে পাশে রাখা গ্লাসের দুধ আয়ুষ্মান খেয়ে ফেলেছেন। মজার এই মুহূর্তের কথা নিজের বইতে সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন তাহিরা।

Back to top button