আট বছর বয়স ছেলের, এখনো একটাও শব্দ উচ্চারণ করেনি! দিদি নং ১ -এ এক প্রতিযোগীর নিজের ছেলের গল্প সবাইকে কাঁদাবে

জি বাংলার দিদি নাম্বার ওয়ান এমন একটি গেম রিয়েলিটি শো যেখানে দর্শকরা প্রতিযোগীদের থেকে নানা ধরনের অনুপ্রেরণামূলক গল্প শুনতে পান। দিদি নাম্বার ওয়ান এর প্ল্যাটফর্মে প্রতিযোগীরা নিজেদের জীবনের গল্প শেয়ার করে নেন দর্শক এবং সঞ্চালিকা রচনা ব্যানার্জীর সাথে।

তেমনি সম্প্রতি দিদি নাম্বার ওয়ান এর একটি এপিসোডে এসে স্বর্ণালী ঘোষ নামের এক প্রতিযোগিনী শেয়ার করে নিলেন তাঁর ৮ বছর বয়সী অটিস্টিক বাচ্চার গল্প।

স্বর্ণালী তার ছেলের খুব ছোটবেলাতেই বুঝতে পারেন যে সে অটিজমে আক্রান্ত। তারপর ছেলেকে নিয়ে শুরু হয় তার জীবন যুদ্ধ। কিভাবে আড়াই বছরের ছেলেকে নিয়ে তিনি বিভিন্ন জায়গায় ছোটাছুটি করে তাকে তিন রকমের থেরাপি দেওয়ার ব্যবস্থা করেন, সে কথা তিনি শেয়ার করে নেন দর্শকদের সঙ্গে।

পাশাপাশি এও বলেন স্পিচ থেরাপির সাহায্য নিলেও তার আট বছর বয়সী ছেলে এখনো পর্যন্ত একটা কথাও বলেনি।
স্বর্ণালীর প্রতি সহমর্মিতা দেখিয়ে সঞ্চালিকা রচনা ব্যানার্জী তাকে বলেন তার ছেলেকে বিভিন্ন রকম ক্রিয়েটিভ আর্টের সঙ্গে যুক্ত রাখতে। নাচ-গান খেলাধুলার সঙ্গে জড়িত থাকলে আস্তে আস্তে তার রাগ কমে মনটা শান্ত হবে বলে জানান রচনা।

স্বর্ণালী দিদি নাম্বার ওয়ানের প্ল্যাটফর্মকে ব্যবহার করে অটিজম সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির চেষ্টা করেন।তিনি দর্শককে জানান অটিজমে আক্রান্ত বাচ্চারাও আর পাঁচটা বাচ্চার মতোই সমাজে বেড়ে উঠতে পারবে, যদি মানুষ উদারভাবে তাদেরকে গ্রহণ করে নিতে শেখে।