বাংলা সিরিয়াল

আদৃত রায়ের থেকেও বেশি দর্শকের ভালোবাসা পাচ্ছেন ফাহিম মির্জা! ধীরে ধীরে আদৃতের জায়গা নিচ্ছেন ফাহিম

আস্তে আস্তে অভিনেতা আদৃত রয় এর জায়গা নিচ্ছেন অভিনেতা ফাহিম মির্জা! ইদানিং এমনই লক্ষ্য করা যাচ্ছে। জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই। শুরুর পর থেকে প্রায় ২২ সপ্তাহ ধরে হয়ে আসছে সেরার সেরা। একভাবে নিজের স্থান বজায় রাখা যদিও খুব একটা সহজ কথা নয়। দর্শকের ভালোবাসা এবং আশীর্বাদেই হয়ত এমনটা হয়।

মিঠাই ধারাবাহিকে মিঠাই এর চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী সৌমিতৃষা কুন্ডু। উচ্ছে বাবুর চরিত্রে অভিনয় করছেন আদৃত রয়। আদৃত রয় এবং সৌমিতৃষা জুটি এই ধারাবাহিকের প্রধান প্রাণকেন্দ্র। তবে ইতিমধ্যে দেখা যাচ্ছে একাধিক জুটির সমাহার। রাতুল এবং শ্রীতমার জুটি ইতিমধ্যেই দর্শকের নজর কাড়তে শুরু করেছে। এরই পাশাপাশি দেখা যাচ্ছে শ্রীনিপা এবং রুদ্রের জুটি।

বেশ কিছুদিন আগেই দর্শক দেখেছিল রাতুল এবং শ্রীতমাকে এক করতে গিয়ে শ্রীনিপা রুদ্র অর্থাৎ সিদ্ধার্থের বন্ধু রুডিকে ভালোবেসে ফেলে। যদিও বিষয়টিকে ভালোবাসা বলা যায়না। তবে আপাতত ধারাবাহিকের গল্প যেরকম ভাবে এগোচ্ছে হয়তো আপকামিং জুটি হিসেবে এদের দুজনকে দেখা যেতে পারে। ইদানিং দেখা যাচ্ছে আদৃতের থেকেও সামাজিক মাধ্যমে বেশি হইচই পড়ছে রুদ্র অর্থাৎ ফাইম মির্জাকে নিয়ে। এরপরে হয়তো দেখা যেতে পারে তোর্সা এবং সোমদার জুটি।

গতকালের এপিসোড দেখা গিয়েছিল তোর্সা যখন নানান কথার মাধ্যমে মিঠাই এর মন খারাপ করতে চাইছে। সেই সময় রুদ্র সেই পরিকল্পনা ভেস্তে দেয়। এছাড়াও পরিবারের সব দরকারে প্রকৃত বন্ধুর মতো সিদ্ধার্থের পাশে এসে দাঁড়ায় রুদ্র। মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের সম্পর্ক ভাঙতে যখন তোর্সা মরিয়া ঠিক সেইসময়ও তার পরিকল্পনায় জল ঢেলে দেয় এই রুদ্রই। রুদ্র চরিত্রের এতটা ইতিবাচক দিক ভালো লাগছে প্রত্যেক দর্শকেরই। আর এই জন্যই হয়তো এবার সিদ্ধার্ত থেকে দর্শকের ভালোবাসা কোথাও না কোথাও শিফট হচ্ছে রুদ্রর দিকেই।

Back to top button