বাংলা সিরিয়াল

‘এই ডিমপচা টমেটো পচা সিরিয়াল বন্ধ হোক’, ৫০০ পর্ব পার ‘যমুনা ঢাকি’র, ধারাবাহিক বন্ধ হোক দাবি নেটিজেনদের

জি বাংলার পর্দায় সম্প্রচারিত অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘যমুনা ঢাকি’। শুরু থেকেই টিআরপির দৌড়ে এক থেকে দশের মধ্যেই থেকেছে এই ধারাবাহিক। সম্প্রতি ৫০০ পর্ব পার করেছে ‘যমুনা ঢাকি’। সেই আনন্দে ধারাবাহিকের সেটে কেক কেটে সেলিব্রেট করলেন সকলে। সেলিব্রেশনের একটি ভিডিও শেয়ার হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। শেয়ার হতেই তা নেটনাগরিকদের মধ্যে ছড়িয়েছে ঝড়ের গতিতে। আর এরপরেই নেটনাগরিকদের একাংশ খুশি হওয়ার বদলে টেলিভিশনের পর্দায় এই ধারাবাহিক বন্ধের দাবি তুলেছেন।

ধারাবাহিকে যমুনা এখন জ্যোতি সেন। ধারাবাহিক অনুযায়ী কয়েকদিন আগেই যমুনাকে খুন করার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু শেষপর্যন্ত ব্যর্থ হয় ষড়যন্ত্রকারীরা। এরপরেই যমুনা ও সঙ্গীত ঠিক করে তারা ষড়যন্ত্রকারীদের উচিৎ শিক্ষা দেবে। যেমন ভাবা, তেমন কাজ। আর এরপরেই পর্দার যমুনা জ্যোতি সেন রূপে ধরা দেন টেলিভিশনের পর্দায়। ইতিমধ্যেই দর্শকমহলে জ্যোতি সেন হিসেবে অভিনয় করে বেশ প্রশংসাও পেয়েছেন তিনি। সকলে তার এই ছদ্মবেশ ধরেও ধরতে পারছেন না। তবে শেষপর্যন্ত কবে জ্যোতি আবার যমুনা রূপে ফিরে আসবে সেই অপেক্ষাতেই রয়েছেন ধারাবাহিক অনুরাগীরা।

সম্প্রতি ‘যমুনা ঢাকি’ যেহেতু টেলিভিশনের পর্দায় ৫০০ পর্ব সম্পন্ন করল, সেই আনন্দে এদিন ‘যমুনা ঢাকি’ সেটের সকল কর্মচারীরা মিলে কেক কেটে ৫০০ পর্ব পূর্ণের আনন্দ উদযাপন করেছেন। এদিন উপস্থিত ছিল গোটা টিম। ধারাবাহিকে যমুনার চরিত্রে অভিনয় করছেন শ্বেতা ভট্টাচার্য। তার বিপরীতে সঙ্গীত হিসেবে রয়েছেন রুবেল দাস। শুরু থেকেই তাদের রসায়ন বেশ পছন্দ দর্শকদের। তবে সম্প্রতি জি বাংলার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে ‘যমুনা ঢাকি’র ৫০০ পর্ব পূর্ণের আনন্দ উদযাপনের ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে, যা ধারাবাহিক অনুরাগী ও সমস্ত নেটনাগরিকদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।

সেলিব্রেশনের এই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, সেটে আনা হয়েছে একটি বড় কেক, যার উপরে রয়েছে ধারাবাহিকের লোগো এবং তার পাশাপাশি লেখা রয়েছে ৫০০ পর্বও। এই কেক সেটের সকলে মিলে মজা করে কেটেছেন। এরপরে সকলেই দর্শকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাদের পাশে থাকার জন্য। কারণ দর্শকরা যদি পাশে না থাকতেন তাহলে ৫০০ পর্ব অতিক্রম করা সম্ভব হতো না। সম্প্রতি তাদের সেলিব্রেশনের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই ইতিবাচক নয় কমেন্ট বক্সে আসতে শুরু করে একাধিক নেতিবাচক মন্তব্য। বেশিরভাগই এই ধারাবাহিক বন্ধের দাবি জানিয়েছেন। তবে এই মুহূর্তে জি বাংলার পর্দায় এই ধারাবাহিক বন্ধ হওয়ার কোন সম্ভাবনাই নেই।

Back to top button