বাংলা সিরিয়াল

লালন করবে দ্বিতীয় বিয়ে? ভালোবাসার টানে নিজের বিয়ের আগেরদিনেও লালনের প্রতি কর্তব্যনিষ্ঠ ফুলঝুরি! বিয়ের আগের দিন লালন কে দেখতে তার বাড়িতে এলো ফুলঝুরি

বহুদিন থেকে চলে আসা দর্শকদের পছন্দের তালিকার অন্যতম একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল স্টার জলসার ‘ধূলোকণা’। যদিও একাংশ দর্শকের দাবি ধীরে ধীরে এই ধারাবাহিক অসহ্য হয়ে উঠছে ফুলঝুরির কারণে। কিন্তু এখনও একটা অংশ এই ধারাবাহিক বেশ পছন্দ করে। বর্তমানে ধারাবাহিকে লালন, ফুলঝুরি এবং চড়ুইয়ের ত্রিকোণ প্রেমের গল্প দেখানো হচ্ছে। যা আর-পাঁচটা ধারাবাহিকের মতই খুব সাধারন। কিন্তু এই ধারাবাহিকে নায়ক নায়িকার বিয়ে না হয়ে খলনায়িকা সঙ্গে বিয়ে হয়ে যায়। আর এখানেই আসে টুইস্ট। কবে যে ফুলঝুরি এবং লালনের সঙ্গে মিল হবে সেটাই দেখার অপেক্ষায় বসে রয়েছে দর্শক।

বর্তমানে ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে ফুলঝুরি লালনের সঙ্গে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর অন্য আরেক জায়গায় বিয়ে ঠিক হয়েছে। সেখানে সমস্ত কথা পাকা। ছেলের বাড়ি তরফ থেকেও ফুলঝুরি কে সকলের পছন্দ এবং ফুলঝুরি ও এই বিয়েতে রাজি। কিন্তু এরই মাঝে ঘটে যায় আরেক বিপত্তি। ফুলঝুরি কে বিপদ থেকে বাঁচাতে গিয়ে লালন বিপদের মুখে পড়ে। আর সেই নিয়েই ফুলঝুরি মনে মনে খুব কষ্ট পাচ্ছে। লালনের এই বিপদ সে আর দেখতে পারছে না।

আর এরই মধ্যে সামনে এলো ধারাবাহিকের একটি ছোট্ট ভিডিও। স্টার জলসার অফিশিয়াল ফেইসবুক পেজ এর তরফ থেকে এই ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে লালনের বাড়িতে অসুস্থ লালনকে দেখতে এসেছে ফুলঝুরি। নিজের বিয়ের আগের দিন এভাবে চলে আসে জন্য লালনের মা ফুলঝুরি কে বোঝাতে থাকে বস্তির লোকজন তাকে সেখানে দেখলে খারাপ কথা বলবে ফুলঝুরি কে নিয়ে কেউ এ বিষয়টা ভালো চোখে দেখবে না। কিন্তু ফুলঝুরি বলে তার জন্য যার এত বড় ক্ষতি হয়েছে ফুলঝুরি তাকে তো দেখতে আসবে তাতে পাঁচটা লোকে কি বলল তার কিছু যায় আসে না। অন্য দিক থেকে লালনের বাবা এবং দিদি ফুলঝুরি কে কথা শোনাতে থাকেন। কিন্তু ফুলঝুরি তাতে পাত্তা দেয় না। অবশেষে লালন তার মাকে বলে তার মা যেন ফুলঝুরি কে এখান থেকে চলে যেতে বলে। কারণ আর এক রাত পেরোলেই ফুলঝুরির বিয়ে আর ফুলঝুরির হবু বর যদি জানতে পারে ফুলঝুরি লালনের বাড়িতে এসেছে তাহলে খারাপ ভাববে। এই ভিডিও ক্লিপটি শেয়ার করা হয়েছে চ্যানেলের পক্ষ থেকে। সাত হাজারেরও বেশি মানুষ ভিডিওটি পছন্দ করেছেন। আর কমেন্ট বক্সে অসংখ্য কমেন্টে করেছেন। সকলেই ফুলঝুরি কে নেক্যা বলেছে। তার এইসমস্ত কর্মকাণ্ড কে ন্যাকামি বলেছে।

Back to top button