টলিউড

দেব কে ছেড়ে এখন রুক্মিণীর কাছের মানুষ অন্য কেউ! দেবের সামনেই সটান চুমু! ভাইরাল ভিডিও

টলি পাড়ার জনপ্রিয় সেলিব্রিটি জুটি দেব – রুক্মিণী। এই জুটিকে নিয়ে মানুষের উত্তেজনা কম নয়। বিশেষত তাঁদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে অনুরাগীদের কৌতূহল প্রচন্ড। মাঝেমধ্যেই তারা প্রশ্ন করে বসেন, “দাদা বিয়েটা কবে করছেন?” যদিও এ বিষয়ে এখনো মুখ খুলতে শোনা যায়নি জুটির কাউকেই। নিজেদের ব্যক্তিগত জীবন দর্শকের সামনে না আনলেও হঠাৎ রুক্মিণী নিজের কাছের মানুষ বললেন অন্য একজনকে। এমনকি সোজা গিয়ে চুমু খেলেন তাঁর গালে! তাও একেবারে দেবের সামনে। চলুন জেনে নিই কে অভিনেত্রীর কাছের মানুষ।

যে ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ার ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রী রুক্মিণী দেবকে পাশে রেখে সটান চুমু খেলেন প্রসেনজিতের গালে। আর দেবের দিকে তাকিয়ে রীতিমতো ব্যঙ্গ করে চলে গেলেন সেখান থেকে। বিষয়টি খুবই অদ্ভুত শুনালেও সবটাই অভিনেতা দেব এবং প্রসেনজিতের নতুন মুভি “কাছের মানুষ” এর প্রচারের জন্য। আসলে দেবের প্রযোজনা সংস্থা অর্থাৎ দেব এন্টারটেইনমেন্ট ভেঞ্চার্জের ঘরে রাখা ছিল কাছের মানুষের একটি ব্যানার। সেখানেই বুম্বাদার গালে চুমু খেলেন রুক্মিণী।

যদিও শুধু এখানেই শেষ নয়। অভিনেত্রী রুক্মিণী এই ভিডিও শেয়ার করেছেন। ভিডিও শেয়ার করে অভিনেত্রী ক্যাপশনে লিখেছেন, “আমি আমার সবথেকে কাছের মানুষকে বেছে নিয়েছি আমার এই সপ্তাহান্তের ডেট হিসেবে। আর আপনি? এখনই বুক করে নিন টিকিট”। সম্পূর্ণটাই এ সিনেমার প্রমোশন ভিডিও। এর আগেও আমরা অভিনেতা দেব কে দেখেছি এই সিনেমার বিভিন্ন রকম ভাবে প্রমোশন করতে। বর্তমান গার্লফ্রেন্ডকে দিয়ে প্রমোশন খুবই স্বাভাবিক।

প্রসঙ্গত শুভ পঞ্চমীতে অর্থাৎ ৩০ শে সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে এই সিনেমা। একেবারে নতুন ধাঁঝের নতুন গল্প নিয়ে হাজির হবেন প্রসেনজিৎ, দেব এবং ঈশা সাহা। তার প্রমান আমরা পেয়ে গিয়েছি সিনেমার ট্রেলারেই। ছেলে কুন্তল প্রতি অভিমান করে নিজেকে অসুস্থ করে ফেলেন মা। আর তাতেই ছেলে ভুগতে থাকে আত্মগ্লানিতে। কিভাবে মাকে সুস্থ করে তুলবে এই ভাবনা ভাবতে ভাবতেই তার পরিচয় হয় বীমা কোম্পানির এজেন্ট সুদর্শন এর সাথে। এখানেই গল্পের টুইস্ট।

সুদর্শন কুন্তলকে একটি বীমা করার অফার করেন। যেখানে কুন্তল মারা গেলে কুন্তলের মাকে সমস্ত ট্রিটমেন্টের টাকা দেওয়া হবে। এতে কুন্তল রাজি হয়ে গেলে সুদর্শন এর সাথে সে ফন্দি বানাতে থাকে যে কিভাবে মৃত্যু যন্ত্রণা কম করে মৃত্যু ঘটানো সম্ভব। অনেক ফন্দি ফিকির করেও কিছুই করে উঠতে পারে না তারা দুজনে। এরই মাঝে কুন্তলের দেখা হয় একটি সাদামাটা প্রাণবন্ত মিষ্টি মেয়ের। এই চরিত্রে দেখতে পাওয়া যাবে অভিনেত্রী ঈশা সাহাকে। এখানেই ইশা কুন্তল কে শেখাবে? কাছের মানুষকে ভালো রাখতে শুধু টাকাই সব হয় না। কি খবর সুদর্শন জানতে পারলে সে নিজেই কোন দলকে ঠেলে দেয় মৃত্যুর পথে। এরপর বাকি গল্প থাকবে সিনেমার পর্দায়।

Back to top button