টলিউড

“একটা সিনেমা করে নিজেকে বড় ভাবছে… একে তো আর ভিডিও বানাতে পারেনা কোন কনটেন্ট নেই তাই এখন দেবদার পিছনে পরেছে” – কাছের মানুষ সিনেমার বাসের একটি ছোট্ট সিন নিয়ে মজা করছেন দেব আর কিরণ, হয়তো বা আসতে চলেছে কোনো প্রমোশন ভিডিও! কিন্তু গোটা সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে চলছে কিরণকে ট্রলিং

কিরণ দত্ত, বাংলার ইউটিউব জগতের একটি উজ্জ্বল নাম। বাংলার ইউটিউবার অথবা কনটেন্ট ক্রিকেটারদের মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় আর পরিচিত যদি কেউ হয়ে থাকেন তবে তিনি কিরণ। একজন ইঞ্জিনিয়ার হয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং জগতে চাকরি না করে ইউটিউব থেকেই বর্তমানের সেলিব্রেটি হয়ে উঠেছেন তিনি। তবে ইউটিউবে নিজেই জানিয়েছিলেন তাঁর কোন দুঃখ নেই যেতে নেই ইঞ্জিনিয়ার হয়ে টাকা কামাতে পারছেন না। বরং তিনি এক নন ফিকশন শো তে এসে বলেছিলেন যে একজন ইঞ্জিনিয়ারের থেকে দশ গুণ বেশি তিনি রোজগার করেন। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে ইউটিউব জগতের সাফল্যের চুরামণি রয়েছে কিরণের মাথায়। মূলত ইওর বঙ্গাই নামেই বাংলায় পরিচিত তিনি। এর আগে ইউটিউবার কে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে অনেকবার ট্রোল করা হয়েছিল। এরকমই একটি নতুন ট্রল শুরু হলো আবার সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

সম্প্রতি কিরণকে একটি পোস্ট করতে দেখা যায়। যেখানে অভিনেতা দেবের আগত সিনেমা কাছের মানুষের একটি ছোট্ট সিন রয়েছে। যেখানে দে বাসে ঝুলন্ত অবস্থায় কিছু ভাবতে ভাবতে যাচ্ছেন। সেই ভিডিও পোস্ট করে কিরণ লিখেছিলেন, “এটা শুধুমাত্র সিনেমাতেই সম্ভব, বাস্তব জীবনে এরকম ভাবে বাসে চড়ে দেখাও দেখি”। অভিনেতার এই পোস্ট নিয়ে প্রথমে বেশ মজা হলেও শুরু হয়েছিল বেশকিছু ট্রোলিং।

কিরণের এই পোস্টটিকে রিপোস্ট করেছেন অভিনেতা দেব। আর কিরণের সেই পোস্ট র পোস্ট করে দেব ক্যাপশনে লিখেছিলেন, “চল ডান … পরশু বাসে দেখা হবে, চ্যালেঞ্জ নিবি না”। আবার দেবের সেই পোস্টটি কি রিপোস্ট করেছেন কিরণ নিজের। ইউটিউবার ফেইসবুকে সেই পোস্টটিকে রিপোর্ট করে বলেছেন, “বদ্দা চ্যালেঞ্জ ওয়ান টু এর ফরএভার থ্রি ও গ্রহণ করেছে, দেখি কেমন পারো”। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছিল যে ইউটিউবার আর অভিনেতা দুজনই এই বিষয়টিকে খুব স্বাভাবিকভাবেই গ্রহণ করেছেন। মজা করছেন আর নয়তোবা সিনেমার প্রমোশন আসতে চলেছে সেটা নিয়েই আগে থেকে জল্পনা কল্পনা করছেন দুজনে। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার মানুষের সবার মধ্যে এতোটুকু বুদ্ধি থাকে না। তাই সবটা না বুঝেই বিভিন্ন ধরনের কমেন্ট করতে থাকেন তারা।

এখানে একজন কমেন্ট করেছেন, “একটা সিনেমা করে নিজেকে এত বড় ভাবছে কেন কিরণ দত্ত নিজেই বুঝতে পারছি না। একেতো ভিডিও বানাতে পারেনা আর কোন কনটেন্ট নেই আবার এখন দেবের পিছনে লাগল যেটা থেকে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করেছিল কিন্তু অডিয়েন্সার পি সি নয়”। আরেকজন লিখেছেন, “নিজেকে বিশাল বড় বিজ্ঞভাবে এই কিরণ দত্ত ছেলেটা… অসহ্যকর… আগে ওই জায়গাটা এচিভ করে দেখাও”। এরকমই আরো নানান শব্দের খোঁচা শুনতে হয়েছে ইউটিউবার কে। তবে তিনিও দমে যাননি প্রত্যেকটি কমেন্টের আলাদা করে রিপ্লাই করেছেন ইউটিউবার।

Back to top button