নির্বাচনের পরই হবে বিবাহবিচ্ছেদ, সাফ জানিয়ে দিলেন রোশন ও নিখিল

একজনের স্ত্রী বিজেপিতে তো অন্যজনের স্ত্রী তৃণমূলের। একজনের স্ত্রী এবারের বিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী ও অন্যজনের স্ত্রী তৃণমূল সাংসদ। ঠিকই ধরেছেন, কথা হচ্ছে অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের স্বামী রোশন সিং ও অভিনেত্রী নুসরত জাহানের স্বামী নিখিল জৈনের সম্বন্ধে।

গত বছর পুজোর আগে থেকেই আলাদা থাকতে শুরু করেন শ্রাবন্তী ও রোশন। আইনি পদ্ধতিতে এখনও তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়নি। তবে এরই মধ্যে শোনা যাচ্ছে যে, নতুন সম্পর্কে জড়িয়েছেন শ্রাবন্তী। তাঁর এই নতুন প্রেমিক তাঁরই আবাসনে থাকেন। যদিও রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার পর শ্রাবন্তীকে সৌজন্যমূলক শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন রোশন।

রোশনের কথায়, নির্বাচনের আগে বিবাহবিচ্ছেদ হবে না। তিনি এও বলেন যে বছর দুই আগে শ্রাবন্তী নামে একটি মেয়েকে বিয়ে করেছিলেন তিনি। কিন্তু আজ তাঁকে রাস্তায় দেখলে তিনি চিনতেও পারবেন না এও বলেন রোশন। তিনি এও বলেন যে এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করলে মানহানির মামলা হতে পারে।

এর আগে রোশনের সম্পর্কে বলা হয়েছিল যে তিনি নাকি স্ত্রীয়ের উপর আর্থিকভাবে নির্ভরশীল। এই বিষয়ে রোশনের জবাব তিনি একটি এয়ারলাইন্সের ক্যাবিন সুপারভাইজার হিসেবে কেরিয়ার শুরু করেন। পরবর্তীতে নিজের দুটো জিম খোলেন তিনি। শ্রাবন্তীর উপর নির্ভর করলে এতদিন তাঁর না খেয়ে ,মরে যাওয়ার কথা ছিল, এও স্পষ্ট জানান রোশন।

অন্যদিকে স্বামীকে ছেড়ে বাবা-মা ও বোনের সঙ্গে বালিগঞ্জের বাড়িতে থাকতে শুরু করেছেন নুসরত। শোনা যায়, অভিনেতা যশ দাসগুপ্তের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার কারণেই তাদের সম্পর্ক ভেঙেছে। বিবাহবিচ্ছেদ সম্পর্কে নিখিলের মত, যেদিন বিবাহবিচ্ছেদ হবে, সেদিন তিনি সকলকে জানিয়ে দেবেন। বিবাহবিচ্ছেদের কথা তিনি উড়িয়ে দেননি।

নিখিল ও রোশন দুজনেই এখন নির্বাচনের ফলাফলের জন্য অপেক্ষারত। একদিকে চলছে রাজ্যে ক্ষমতা দখলের লড়াই, অন্যদিকে বৈবাহিক সম্পর্ক থেকে মুক্তির লড়াই।