বাংলা সিরিয়াল

‘আপনি কিন্তু বড্ডো বাড়াবাড়ি করছেন’, ঋদ্ধির কলার ধরে ধমকালো খড়ি, টানটান পর্ব ‘গাঁটছড়া’ তে, ভাইরাল হলো গাঁটছড়া ধারাবাহিকের মুহূর্ত

বর্তমানে বাংলা বিনোদন জগত কাঁপাচ্ছে এক একটি ধারাবাহিক। কোন চ্যানেল সবথেকে বেশি জনপ্রিয়তা পাবে কোন চ্যানেলের সবথেকে বেশি ধারাবাহিক TRP তালিকায় থাকবে সেটাই প্রতিনিয়ত প্রতিযোগিতা চলছে। আর এই প্রতিযোগিতার মধ্যে এবং জি বাংলা এবং স্টার জলসা রয়েছে একদম প্রথমে। এই দুই চ্যানেল একে অপরকে সব সময় টেক্কা দিতে ব্যস্ত। আর এই ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় এবং সেরা ধারাবাহিক হল স্টার জলসার ‘গাঁটছাড়া’। আর এই ধারাবাহিক ও মিঠাই ধারাবাহিকের জোরদার হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছিল। যার ফলে মিঠাই ধারাবাহিকে পেছনে ফেলে টিআরপিতে লেখা প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছিল টানা ১৪ সপ্তাহের জন্য। ধারাবাহিকে প্রতিদিন টুইস্ট এর মাধ্যমে দর্শকদের নজর আকর্ষণ করছে প্রত্যেকে।

ধারাবাহিকের সোলাঙ্কি এবং গৌরবের জুটি প্রথমবারের জন্য অনস্ক্রিন দেখানো হচ্ছে। আর প্রথমবারের জন্য জুটি বেঁধেই একেবারে হিট জুটি হয়ে উঠেছে দুজনে। ধারাবাহিকে সোলাঙ্কি খড়ি চরিত্রে অভিনয় করছেন এবং গৌরব অভিনয় করছেন ঋদ্ধিমান চরিত্রে। গোড়া থেকেই খড়ি এবং ঋদ্ধিমান একে অপরকে একেবারেই পছন্দ করেনা। কিন্তু ভাগ্যের পরিহাসে দুজনে একই গাঁটছড়া বাঁধা পড়ে এরপর এগোতে থাকে ধারাবাহিকের গল্প।

খড়ি কে নিজের স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়না ঋদ্ধি। যার ফলে সিংহ রায় বাড়ি স্টোররুমে জায়গা হয় খড়ির এবং নিজের হাতে সাজিয়ে গুছিয়ে সেখানেই থাকতে শুরু করে খড়ি। কিন্তু যতদিন যায় নানান খুনসুটি ঝগড়াঝাঁটির মাধ্যমে ধীরে ধীরে ঋদ্ধি এবং খড়ির মধ্যে আলাদা একটি কেমিস্ট্রি তৈরি হয়। কিন্তু তাও দুজন দুজনকে একেবারেই পছন্দ করে না। আর অন্যদিকে রাহুল এবং দ্যুতির রিসেপশন পার্টি দিন খড়ির মা জানতে পারে যে খড়ি এবং ঋদ্ধিমান একসঙ্গে থাকে না। বরং খড়ি সিংহ রায় বাড়িতে আলাদা থাকে তার স্বামীর ঘর থাকা সত্ত্বেও। এটা জানার পর থেকেই খড়ির মা মনে মনে বেশ বিব্রত হয়ে পড়ে মেয়েকে নিয়ে।

আর অন্যদিকে ঋদ্ধিমান জেনে যায় যে খড়ির বাড়ির লোক পর্যন্ত জেনে গিয়েছে খড়ি এবং ঋদ্ধিমান এর আলাদা থাকার কথা। যার ফলে ঋদ্ধিমান রাগে গজগজ করতে থাকে এবং খড়ি কে ভুল বোঝে। সে ভাবে খড়ি হয়তো ইচ্ছে করে ঋদ্ধিমান কে অপমান করার জন্য এই সমস্ত কান্ড করছে। তাই খড়ি কে নিজের ঘরে নিয়ে আসার ব্যবস্থা করে সে। নিজের ঘর থেকে সমস্ত জিনিসপত্র বার করে নিয়ে আসে এবং খড়ি কে স্পষ্ট জানিয়ে দেয় যে এবার থেকে ঋদ্ধিমান এর ঘরে থাকবে খড়ি। কিন্তু খড়ি যেতে নারাজ কিছুতেই এক ঘরে থাকতে চায় না সে। কিন্তু ছাড়বার ঋদ্ধিমানও ছাড়ার পাত্র নয় জোর করে খড়ি কে নিয়ে যায় নিজের ঘরে। আর খড়ি কে জব্দ করার জন্য স্টোর রুমের ঘরের দেয়াল তুলে দেয়।

সম্প্রতি এই ধারাবাহিকের ছোট ভিডিওটি সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয়েছে। গাঁটছড়া ধারাবাহিকের একটি ফ্যান পেজ থেকে খড়ি এবং ঋদ্ধির এই কথোপকথন এবং খুনসুটিভরা মুহূর্তের ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছে। অসংখ্য মানুষ এই ভিডিওটি পছন্দ করেছেন কমেন্ট বক্সে ঋদ্ধি এবং খড়ির কেমিস্ট্রির প্রশংসা পর্যন্ত করেছেন।

Back to top button