বাংলা সিরিয়াল

‘যে যাওয়ার সে যাবেই, কাউকে আটকে রাখা যায়না’! দিদি নং ১ এর মঞ্চে এবার অভিনেতা গৌরবের সাথে ব্রেকআপ এর কথা স্বীকার করে নিলেন অভিনেত্রী শ্রীমা ভট্টাচার্য

টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় কাপল ছিলেন অভিনেতা গৌরব রায় চৌধুরী এবং টলি অভিনেত্রী শ্রীমা ভট্টাচার্য। তবে বেশ কিছুদিন ধরে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল যে তাদের ঘনিষ্ঠ প্রেমের সম্পর্কে ভাঙ্গন ধরেছে। এমনকি শোনা গিয়েছিল গৌরবের অসুস্থতার খবর শুনে তাকে শ্রীমা একাধিকবার ফোন করলেও ফোন ধরেননি অভিনেতা।

তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে এবার মুখ খুললেন অভিনেত্রী নিজেই।সম্প্রতি দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে অতিথি হিসেবে এসেছিলেন তিনি। সেখানেই ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খোলাখুলি নানান প্রশ্নের উত্তর দেন শ্রীমা। সঞ্চালিকা রচনা ব্যানার্জীর প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে অভিনেত্রী জানান বন্ধু-বান্ধব এবং পরিবার, সঙ্গে অভিনয় জীবন সবমিলিয়ে নিজেকে ভালো রাখার চেষ্টা করছেন তিনি। কারণ হিসেবে তিনি বলেন তিনি বুঝতে পেরেছেন যার যাওয়ার সে যাবেই কাউকে জোর করে আটকে রাখা যায় না।

তবে ব্যক্তিগত জীবনে কঠিন সময়ে এলেও হাসিমুখে যে ক্যামেরার সামনে কাজ করে যেতে হয় তাকে, সে কথা মনে করিয়ে দিতে ভোলেননি অভিনেত্রী। রচনা ব্যানার্জি অবশ্য তাকে পরামর্শ দিয়ে জানিয়েছেন যে তার চারপাশে অনেক ভালোবাসার মানুষ আছেন রয়েছেন।

পরিবার এবং বন্ধুরাও রয়েছেন, তাই একজন কেউ না থাকলে কিছু এসে যাবে না। বলাই বাহুল্য এদিনের এপিসোড প্রশংসা কুড়িয়েছে নেটিজেনদের কাছে। শ্রীমার মানসিকতা দৃঢ়তা ঠিক কতখানি, তা বুঝতে পেরেছেন তার অনুগামীরা তার কথার মাধ্যমে। সে কারণেই আপাতত অভিনেত্রীর উদ্দেশ্যে আগাম জীবনের শুভেচ্ছা বার্তায় ভরছে সোশ্যাল মিডিয়া।

Back to top button