Tollywood

‘হুবহু মিয়া খলিফা’, মা হওয়ার পরেও বার বার চরম ট্রোলের সম্মুখীন সুপারহিট অভিনেত্রী নুসরাত জাহান

অগাস্ট মাসের শেষের দিকে পার্কস্ট্রীটের কড়া নিরাপত্তায় ঘেরা একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন নুসরাত জাহান। এরপর ২৬-শে অগাস্ট ঐ বেসরকারি হাসপাতালে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। বিগত বেশ কয়েক মাস ধরে নুসরাত জাহানই ছিলেন টলিউড ইন্ডাস্ট্রি সবথেকে বেশি চর্চিত একজন নায়িকা। তাকে নিয়ে সমালোচনা কম হয়নি মিডিয়া এবং নেটিজেনদের মধ্যে।

মা হওয়ার পরেও সেই সমালোচনা থামেনি এখনও। তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অভিনেত্রী নুসরাত জাহান সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি সিঙ্গেল মাদার হবেন। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসার পর থেকে চরম ট্রোলের সম্মুখীন হয়েছেন এই অভিনেত্রী। নিখিল জৈনের সাথে তার বিবাহ বিচ্ছেদ, যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে তার সম্পর্ক, তার সন্তানের পিতৃ পরিচয় ইত্যাদি এই সমস্ত বিষয় নিয়ে এক দীর্ঘ সমালোচনা চলেছে। যার ইতি এখনো টানা সম্ভব হয়নি।

টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত নিজে গাড়ি চালিয়ে অভিনেত্রী নুসরাত জাহান হাসপাতালে ভর্তি করে দিয়েছিলেন। অভিনেত্রী মা হওয়ার পরে অভিনেতা নিজে এসে গাড়ি করে তাদের বাড়ি পর্যন্ত নিয়ে গেছেন। এই নিয়েও কম কথা হয়নি। বেশিরভাগ মানুষেরই ধারণা যশ দাশগুপ্তই নুসরাত জাহানের সন্তানের বাবা। নুসরাত ও যশের নামের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই বাচ্চাটির নাম দেওয়া হয়েছে ঈশান। তবে কোনোদিনই এই সমস্ত সমালোচনার উত্তর দেননি অভিনেত্রী।

অভিনেত্রী জানিয়ে দিয়েছেন তার ছেলে শুধুমাত্র তার পরিচয় বড় হবে। তার এই সিদ্ধান্তে সমর্থন জানিয়েছেন টলিউডের বহু অভিনেতা। তারা জানিয়েছেন তারা সকলেই অভিনেত্রীর পাশে রয়েছেন। তার মাতৃত্বের জন্য বিভিন্ন অভিনেতা-অভিনেত্রী এবং রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীরা তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

জন্মাষ্টমীর দিনেই ছেলেকে নিয়ে বাড়ি ফিরে এসেছেন অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। বাড়ি ফেরার পর থেকেই অভিনেত্রী আবারো নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকে অ্যাক্টিভ হয়েছেন। একের পর এক তাক লাগানো ছবি শেয়ার করছেন নিজের সোশ্যাল অ্যাকাউন্ট থেকে। খুব স্বাভাবিক ভাবেই নিমেষের মধ্যে যা ভাইরাল হয়ে যাচ্ছে নেটিজেনদের মধ্যে এবং তার অনুরাগীদের মধ্যেও। তবে সেই সমস্ত ছবির কমেন্ট সেকশনে অনেকে অনেক ধরনের মন্তব্য করেছেন। তবে অভিনেত্রী সেই সমস্ত মন্তব্যকে বিশেষ পাত্তা দেননি।

Back to top button