বাংলা সিরিয়াল

চলছেনা ধারাবাহিক, তলানিতে TRP! স্টার জলসার পর্দায় ‘শ্রীকৃষ্ণভক্ত মীরা’র পর শেষ হচ্ছে ‘সাঁঝের বাতি’

খুব শীঘ্রই স্টার জলসার পর্দায় শেষ হতে চলেছে ‘সাঁঝের বাতি: নতুন পৃথিবী’ ধারাবাহিকটি। ‘শ্রীকৃষ্ণভক্ত মীরা’র পর এবার শেষের পথে সাঁঝের বাতিও। গত কয়েক মাস ধরেই টিআরপি তলানিতে গিয়ে ঠেকেছিল এই ধারাবাহিকের। সম্ভবত সেই কারণেই এই ধারাবাহিক শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কতৃপক্ষ।

দীর্ঘ তিন বছর ধরে এই ধারাবাহিক সম্প্রসারিত হচ্ছে স্টার জলসার পর্যায়। ২০১৯’এ এই ধারাবাহিক গ্রামের সরল সাদাসিধে মেয়ে চারু ও বড়লোক বাড়ির অন্ধ ছেলে আর্যর প্রেম কাহিনী দিয়েই শুরু হয়েছিল। বহু ওঠানামার পর ইতি টানে অনস্ক্রিন আর্য-চারুর প্রেম কাহিনী। এরপরেই ‘সাঁঝের বাতি: নতুন পৃথিবী’তে আর্য-চারু নতুন রূপে অর্জুন-চিকু হয়ে ফেরে টেলিভিশনের পর্দায়। তবে এই নতুন প্রেম কাহিনী খুব একটা জনপ্রিয়তা পায়নি দর্শকদের মাঝে। ধারাবাহিকের টিআরপি কমলেও অনস্ক্রিন রিজওয়ান ও দেবচন্দ্রিমার রসায়ন পছন্দ দর্শকদের একাংশের।

পর্দার পাশাপাশি বাস্তবেও তাদের সম্পর্ক নিয়ে কম জল্পনা নেই তাদের অনুরাগীদের মাঝে। তবে নিজেদের বন্ধু বলতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন এই জুটি। সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলেই তাদের একসাথে দেখা মেলে। নিঃসন্দেহে বলা যায় অফস্ক্রিন রিজওয়ান ও দেবচন্দ্রিমার লাভ স্টোরি নিয়ে জল্পনার শেষ নেই দর্শকমহলে।

গত শনিবার, নিজেদের ধারাবাহিকের শেষ এপিসোডের শুটিং সারলেন রিজওয়ান রাব্বানি শেখ ও দেবচন্দ্রিমা সিংহ রায়। ৮০০’তম এপিসোডেই ইতি টানবে এই ধারাবাহিক। শেষ দিন শুটিং শেষে সকলে মিলে কেকও করেছিলেন। সম্প্রতি সেই ভিডিও শেয়ার করে নিজেই সেকথা জানিয়েছেন ধারাবাহিকের নায়ক রিজওয়ান। এদিন শুটিং সেটে উপস্থিত ছিলেন প্রযোজক স্নিগ্ধা বসু ও সানি দাস।

শুটিং শেষে দর্শকদের উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়েছেন দুজনেই। অভিনেত্রী জানিয়েছেন এই ধারাবাহিক তার খুব কাছের। এখান থেকে অর্জিত সমস্ত স্মৃতিই তার মনে থেকে যাবে আজীবন। অন্যদিকে রিজওয়ান দর্শকদের উদ্দেশ্যে জানান, তারা খুব মজা করে এই তিনটে বছর কাটিয়েছেন। আশা করেছেন সকলেই তাদের সাথে সাথে উপভোগ করেছেন এই তিনটে বছর। শেষে নতুন রূপে প্রিয় দর্শকদের সামনে ফিরে আসার বার্তাও দিয়েছেন তারা। লকডাউন না থাকলে ১০০০ এপিসোড পেরিয়ে যেতেন বলেই দাবি এই জুটির।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!
Back to top button