বাংলা সিরিয়াল

‘জি বাংলার মা দুর্গা নিজেই নিজের ঠোঁটে লিপস্টিক লাগাচ্ছেন! যতই অভিনয় হোক বাঙালির আবেগ মা দুর্গা! এই দৃশ্য দেখানো মোটেই উচিত হয়নি’বলছেন নেটিজেনরা!

আগামী ২৫ শে সেপ্টেম্বর ২০২২ মহালয়া। মহালয়া মানে মানুষের আবেগ আসলে পুজো তো শুধু বছরের মধ্যে পাঁচ ছটা দিন প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘোরা বা আনন্দ মজা করা‌ই নয়, পুজো হলো একটি সর্ববৃহৎ চিন্তা যাতে সার্বিক উন্নতি ঘটে এই জগতের প্রতিটি স্তরের মানুষের কিছু না কিছু মঙ্গল সাধিত হয়। যেমন একটি পুজো অনুষ্ঠান হলে সেই পুজো মণ্ডপের বাইরে প্রচুর স্টল বসে এবং সেই স্টল গুলোতে স্বাভাবিকভাবেই মানুষ ভিড় করে ফলে একটা পুজোতে অনেক মানুষের দিন গুজরান হয়। তাই পুজো মানেই আবেগ আর এই আবেগের সূত্রপাত হয় মহালয়ার মধ্য দিয়ে। মহালয়া মানে ভোর ভোর ঘুম থেকে উঠে বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্র শোনা, মহালয়া মানেই কোন চ্যানেলে দুর্গতিনাশিনী দুর্গার রূপে কে আসছেন তা দেখার অসম্ভব আগ্রহ।

এই বছর জি বাংলায় মহালয়ায় দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গার রূপে আসবেন বাংলা চলচ্চিত্র জগতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলী। ইতিমধ্যেই দেবী দুর্গা হিসেবে তার লুক সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে, প্রচুর মানুষ সেই লুকের প্রশংসা করেছেন। তবে এর পাশাপাশি কিছু মানুষ আবার বিরোধিতাও করেছেন। অনেকে বলেছেন প্রতি বছর শুভশ্রী গাঙ্গুলীকে কেন যেন মনে হয় রিপিট টেলিকাস্ট দেখছি।

সম্প্রতি জি বাংলার তরফ থেকে একটি ভিডিও আপলোড করা হয় যেখানে দেখানো হয় মহালয়ার বিহাইন্ড দা ক্যামেরা তে কী কী ঘটছে? এই ভিডিও নিয়ে আবার শুরু হয় তুমুল ট্রোলিং। কারণ এই ভিডিওতে শেষে এমন একটি জিনিস দেখানো হয়েছে যা দর্শকদের একেবারেই না পসন্দ। এই ভিডিওতে দেখানো হচ্ছে শেষের দিকে যে শুভশ্রী গাঙ্গুলী দুর্গার রূপে সেজে উঠেছেন এবং তিনি নিজেই নিজের ঠোঁটে লিপস্টিক লাগাচ্ছেন। এই বিষয়টা দর্শকরা ভালোভাবে নেন নি, আসলে এই বিষয়টা দেখানোর ফলে তাদের ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে।

দর্শকদের এক‌অংশের মানুষ বলছেন, আমরা জানি শুভশ্রী গাঙ্গুলী মা দুর্গা চরিত্রে অভিনয় করছেন। তবুও মা দুর্গা তো দেবী। সেক্ষেত্রে দেবীর সাজে মা দুর্গা নিজেই নিজে লিপস্টিক লাগাচ্ছেন বিষয়টা কেমন যেন একটা দৃষ্টিকটু লাগে। অনেকে আবার মনে করছেন, এই ভিডিওটা মহালয়ার পরে আপলোড করলেই বরং ভালো হতো।

Back to top button