বাংলা সিরিয়াল

‘ইষ্টি কুটুম’ সিরিয়াল না ছাড়লে হয়তো মরেই যেতাম! চোখের জলে অভিনয়কে বিদায় জানিয়েছিলেন ‘ইষ্টি কুটুম’-এর ‘বাহা’ রনিতা দাস! মুখ খুললেন রনিতা দাস

স্টার জলসার এক সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ছিল ‘ইষ্টি কুটুম’। এই ধারাবাহিকে নায়িকার ভূমিকায় দেখা মিলত রনিতা দাসের। তার বিপরীতে ছিলেন ঋষি কৌশিক। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তাদের অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল দর্শকমহলে। একজন আদিবাসী মেয়ের চরিত্রে অভিনয় ছিল নজরকাড়া। কিন্তু হঠাৎ করেই তিনি মাঝপথে ধারাবাহিক ছেড়ে দেয় তার জায়গায় দেখা গিয়েছিল অন্য অভিনেত্রীকে। তিনি হঠাৎ করে মাঝরাতে কেন ধারাবাহিক ছেড়েছিলেন সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন তিনি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি নিজের ধারাবাহিক ছেড়ে বেরিয়ে আসার প্রসঙ্গ নিয়ে বলতে গিয়ে জানিয়েছেন, তিনি যদি সেই সময় ধারাবাহিক ছেড়ে না দিতেন তাহলে তিনি হয়তো প্রাণে বাঁচতেন না। তিনি জানিয়েছেন সম্পূর্ণ শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি ধারাবাহিক ছেড়ে বেরিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছিলেন। ওভারিতে সমস্যা হওয়ার কারণেই সেইসময় তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হয়ে গিয়েছিল, সেই সময় অভিনয় ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন রনিতা দাস।

তার কথায় সেই সময় ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই ভেবেছিলেন তিনি জেদের বশে এই কাজ করেছেন কিন্তু আসলে সেটা সত্যি নয়। শিরদাঁড়ায় অসহ্য যন্ত্রণার কারণে সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারতেন না তিনি। সেই অবস্থায় একনাগাড়ে শুটিং করার ফলে তার শারীরিক অসুস্থতা বেড়ে যায় আরো তাই তিনি বাধ্য হয়েছিলেন অভিনয় ছাড়তে। সেই সময়ে কথা কেউ বুঝতে চাওনি বলেই জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

অভিনেত্রী আরও জানান তার তৎকালীন প্রেমিক এবং বর্তমান স্বামী সৌপ্তিক তার অভিনয় ছাড়ার কয়েক দিনের মধ্যেই তিনি ও ‘জল নুপুর’ ধারাবাহিক ছেড়ে দেন। সেইসময়ে তিনি এই ধারাবাহিকে নায়কের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তারা যেহেতু কয়েক দিনের মধ্যেই কাজ ছেড়েছিলেন, ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেই ভেবেছিলেন তারা আলোচনা করে এই কাজটি করেছেন। তবে তিনি জানান তারা দুজনে সম্পূর্ণ ভিন্ন কারণে ধারাবাহিক ছেড়েছিলেন। এই ঘটনার পর তাদের দু’জনকেই ইন্ডাস্ট্রি থেকে ব্যান করে দেওয়া হয়। তার জন্য তাদের যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছিল, সেকথাও তিনি উল্লেখ করেছেন এই সাক্ষাৎকারে।

Back to top button