বাংলা সিরিয়াল

বর নিয়ে টানাটানি না হলে সিরিয়াল TRP পায় না! লালকুঠি, প্রথমা কাদম্বিনী তার সার্থক উদাহরণ! দাবি করেন নেটিজেনদের এক অংশ

বর্তমান সময়ে যে কোনো ধারাবাহিকের ক্ষেত্রেই টিআরপি জিনিসটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। একটা সময় ছিলো যখন প্রতিটি ধারাবাহিক প্রচুর পরিমাণে টিআরপি পেত এবং সেই কারণে এক একটা ধারাবাহিক দুই থেকে তিন বছর করে চলতো। আসলে সেই সময় মানুষের হাতে এত বেশি মোবাইল ছিল না এবং বর্তমানের মতো স্টার জলসা জি বাংলার বিভিন্ন অ্যাপ ও খোলা হয় নি। যেগুলি মাধ্যমে টিভিতে না দেখলেও সেই অ্যাপগুলির মধ্য দিয়ে সিরিয়াল দেখা যায়। তাই তখন টিভি মানুষের বিনোদনের একমাত্র উপায় ছিল।

কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন রকম চ্যানেলের অ্যাপ হয়ে গেছে। তাই মানুষ অনেক সময় ধারাবাহিক টিভিতে না দেখে অ্যাপ গুলিতে দেখে এবং সেই কারণে টিআরপি কমে যায় আর কোন ধারাবাহিকের যখন টিআরপি কমে যায় তখন সেই ধারাবাহিক থেকে অকালে চলে যেতে হয় যেমন শুরু হওয়ার তিন মাসের মধ্যেই শেষ হয়ে গেল স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘বৌমা এক ঘর’।

এখন যেকোনো ধারাবাহিকের দর্শক এবং টিআরপি টানবার জন্য সবথেকে আকর্ষণীয় ট্রাকগুলি ধারাবাহিকে নিয়ে আসার চেষ্টা করা হয় কিন্তু তা সত্ত্বেও দেখা যায় টিআরপি ওঠে না। মানুষ কুট কাচালি পরকীয়া একজন স্বামীকে নিয়ে তিন জনের ঝামেলা এইসব দেখতে পছন্দ করেন। তাই নির্মাতারা ধারাবাহিকের মধ্যে এই সমস্ত কুট কাচালি পরকীয়া, এক স্বামীকে নিয়ে তিন জনের টানাটানি ইত্যাদি বিষয়গুলি ধারাবাহিকে দেখিয়ে থাকেন। কোন ধারাবাহিক‌ই এর থেকে মুক্ত নয়। এখন যদি প্রশ্ন করা হয় যে, এমন কয়েকটি ধারাবাহিকের নাম যে ধারাবাহিকগুলি বর্তমান সময়ে পরকীয়া এবং কূটকাচালি মুক্ত, তাহলে হাতের কাছে দু একটা ধারাবাহিকের কথাই মনে আসে।

সম্প্রতি একজন নেটিজেন এই সম্পর্কে প্রশ্ন করেন, “এমন একটা সিরিয়ালের নাম বলেন যেখানে কোনো পরকীয়া নেই,বর নিয়ে টানাটানি নেই,বোনে বোনে যুদ্ধ নেই, শাশুড়ী বউমার ঝগড়া নেই।বিশেষ করে বারবার বিয়ে আর বর নিয়ে টানাটানি নেই। Me: লালকুঠি, প্রথমা কাদম্বিনী ”-হ্যাঁ সত্যি লালকুঠি, প্রথম কাদম্বিনী- পরকীয়া কূটকাচালী থেকে মুক্ত। কমেন্টে এরকম আরো অনেক ধারাবাহিকের নাম অনেকে বলেছেন, যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল-এসো মা লক্ষী, গোয়েন্দা গিন্নি, গোধূলি আলাপ- যদি‌ও গোধূলি আলাপে অরিন্দমের ওপর রোহিনীর নজর ছিল তবে সেটা শুধুমাত্র সম্পত্তির জন্য আর এই সম্পত্তির জন্যই রোহিনী বর্তমানে আদি কে বিয়ে করেছে। রোহিনী অরিন্দমকে ভালোবেসে নয়, সম্পত্তি হাতানোর জন্য বিয়ে করতে চেয়েছিল তাই এক অংশ নেটিজেন মনে করেন গোধূলি আলাপ ও এই সকল পরকীয়া, শাশুড়ি বৌমার লড়াই মুক্ত ধারাবাহিক।

আবার এই সকল ধারাবাহিক গুলি টিআরপি পায় না ঠিকমত তার কারণ ওই যে বর নিয়ে টানাটানি নেই পরকীয়া নেই।

Back to top button