বাংলা সিরিয়াল

‘লালকুঠিতে আগে ছিল দুজন অনামিকা এখন আবার একজন যোগ দিল! অনামিকার ছড়াছড়ি লালকুঠিতে’! তিন অনামিকা মিলে টেনে তুলতে পারবে তো লালকুঠি টিআরপি প্রশ্ন করছেন দর্শক!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক লালকুঠি। রহস্য রোমাঞ্চে ঘেরা এই ধারাবাহিক অত্যন্ত জনপ্রিয় হলেও ধারাবাহিকের টিআরপি সেই রকম ভালো হয় না। অথচ ধারাবাহিকের গল্প অভিনেতা-অভিনেত্রীর অভিনয় অসাধারণ। এর কারণ হিসেবে একদল মনে করেন যে বাঙালি যে সমস্ত দর্শক আছেন তারা রীতিমতো দু ধরনের কাহিনী দেখতে পছন্দ করেন। এক তারা ফ্যামিলি ড্রামা দেখতে পছন্দ করেন, দুই তারা লাভ স্টোরি টাইপের কাহিনী দেখতে পছন্দ করেন।

খুব কম মানুষই আছেন যারা গোয়েন্দা সিরিজ বার রহস্য টাইপের জিনিস দেখতে পছন্দ করেন আর এই কারণেই পান্ডব গোয়েন্দাদের মত ধারাবাহিক গুলো অকালে হারিয়ে যায়। বিষয়ের মধ্যে অভিনবত্ব থাকলেও দর্শক সেইভাবে বিষয়গুলিকে একসেপ্ট করেন না। অনেকে আবার মনে করেন লালকুঠির গল্প ঠিক সেরকমভাবে গোছালো নয় আরেকটু গোছালো হলে দর্শকরা বিষয়টাতে ইন্টারেস্ট পেতেন।

অনেকে আবার মনে করেন যে বিক্রম চরিত্রের অভিনেতা রাহুল কে যে চরিত্রটি এখানে দেওয়া হয়েছে সেটা ঠিক তার সাথে মানায় না, রাহুলকে দেশের মাটি ধারাবাহিকের রাজা চরিত্রের মত সাদামাটা আটপৌরে চরিত্রে বেশি ভালো লাগে। সে যাই হোক মোদ্দা কথা হল এই সমস্ত কারণেই লালকুঠির টিআরপি খুব একটা ভালো নয় তবে জনপ্রিয়তা রয়েছে আবার বইপ্রেমী মানুষরা এই ধারাবাহিককে মাথায় করে রাখেন। সম্প্রতি এই ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে জিনি কে সেই রহস্য উদঘাটনে নেমে পড়েছে অনামিকা ও বিক্রম।

বিক্রমের অবশ্যই স্থির বিশ্বাস জিনি আর কেউ নয়, জিনি তার স্ত্রী অনামিকা। কিন্তু ধারাবাহিকে টুইস্ট এনে দেখানো হলো যে, জিনি অন্য কেউ। এখন প্রশ্ন হচ্ছে যে জিনি চরিত্রে যিনি অভিনয় করছেন সেই অভিনেত্রীর নাম অনামিকা চক্রবর্তী। অনেক আগে থেকেই লালকুঠিতে বিক্রমের ঠাকুমার চরিত্রে অভিনয় করেন অনামিকা সাহা অন্যদিকে বিক্রমের স্ত্রীর নাম অনামিকা। তাই লালকুঠিতে দর্শকরা হেসে বলছেন যে, একা রামে রক্ষে নেই আবার সুগ্রীব দোসর। এক নয় তিন অনামিকার আবির্ভাব হয়েছে লালকুঠিতে! একজন নেটিজেন যেমন স্পষ্ট লিখেছেন, “লালকুঠিতে আগে ছিলো দুই অনামিকা। এবার এলো আরো একজন। অনামিকার ছড়াছড়ি।”- এখন এই তিন অনামিকার উপস্থিতি টিআরপির উপর প্রভাব ফেলে কিনা সেটাই দেখতে চান দর্শক!

Back to top button