বাংলা সিরিয়াল

আট বছরের ছেলের বুদ্ধি লাগাবে তাক! পর্দার বোধি আসলে বাস্তব জীবনে কেমন, রইল ‘বোধিসত্ত্ব বোধবুদ্ধি’ ধারাবাহিকের বোধির আসল পরিচয়

খুব শীঘ্রই জি বাংলার পর্দায় আসতে চলেছে নতুন ধারাবাহিক বোধিসত্ত্বের বোধবুদ্ধি। ধারাবাহিকে কেন্দ্রীয় চরিত্র হিসেবে একজন শিশু শিল্পী কে তুলে ধরা হবে। তাকে নিয়ে এগোবে ধারাবাহিকের আগামী দিনের গল্প। ধারাবাহিকের প্রমো ভিডিও সামনে আসার পর থেকেই দর্শক দারুণভাবে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন ধারাবাহিক দেখার জন্য। বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ ধারাবাহিকেই সংসারের কুটকাচালি, ত্রিকোণ প্রেম, অবৈধ সম্পর্ক এসব দেখানো হয়ে থাকে। এসবের মাঝে দু একটা ভিন্ন স্বাদের গল্প থাকলেও সেই ধারাবাহিকগুলো যে সবসময় সফল হয়েছে তা নয়। তাই এই সবকিছুর মাঝে বোধিসত্ত্বের বোধবুদ্ধি কতটা সফল হবে সেটাই দেখার অপেক্ষা।

ধারাবাহিকে দেখা যাচ্ছে আট বছরের এক ক্ষুদে বাচ্চা বোধি যে সবসময় বয়স্কদের মতোই হাবভাব করো। বাস্তবেও নাকি এই সে। পর্দার বোধির আসল নাম হল রায়ান গুহনিয়োগী। শোনা যায় বাস্তবেও নাকি সে এরকমই। ধারাবাহিকে তার মায়ের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে সোনালি চৌধুরীকে। আর বাস্তবে রায়ানের মায়ের নাম মৌমিতা গুহনিয়োগী। মৌমিতা সংবাদ মাধ‍্যমকে জানান, রায়ান খুবই বুদ্ধিমান। সেন্ট লরেন্স স্কুলে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে সে। কবিতা বলতে, নাচতে, নাটকও করতে পারে রায়ান।

কিন্তু বোধির চরিত্রে কিভাবে রায়ান সুযোগ পেল এই প্রশ্নের উত্তরই মৌমিতা দেবী জানান ছেলের কবিতা বলার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেন তিনি এবং সেখান থেকেই ভিডিওটি জি বাংলারকোন এক কর্মকর্তার চোখে পড়ে। তারপরে অডিশনের জন্য কল আসে। এরপর অডিশনের মাধ্যমে রায়ান বোধি র চরিত্রের জন্য সিলেক্টেড হয়। আগামী ৪ঠা জুলাই থেকে জি বাংলার পর্দায় দেখা যাবে নতুন ধারাবাহিক বোধিসত্ত্বের বোধবুদ্ধি।

Back to top button