বাংলা সিরিয়াল

আসছে সুপারস্টার শুভশ্রীর ‘বৌদি ক্যান্টিন’, প্রশ্ন তুলবে ‘মেয়েদের স্বাধীন হওয়া মানেই কি পুরুষদের মতো হওয়া?’

শুভশ্রী গাঙ্গুলী, পরমব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় টলিউডের জনপ্রিয় দুটি নাম। এবার এনারা দুটি বাঁধতে চলেছেন নতুন করে। আসতে চলেছে পরমব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিচালিত “বৌদি ক্যান্টিন”। এই ছবির মধ্যে দিয়ে সমাজের কাছে প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন পরিচালক “মেয়েদের স্বাধীন হওয়া মানেই কি পুরুষদের মতো হওয়া?” সেই সঙ্গেই প্রচলিত ধারাই আছে যে বাঙালি মেয়ে মানে টিচার আর ছেলে মানে সরকারি চাকরি। সেসবের পিছনের গল্প নিয়েই আসছে “বৌদি ক্যান্টিন”।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে শুভশ্রী গাঙ্গুলী অভিনীত এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় পরিচালিত বৌদি ক্যান্টিনের ট্রেলার। এই নতুন গল্পের কাহিনীকার সোমশ্রী ঘোষ এবং অরিত্র সেন। তবে বাকি চিত্রনাট্যের কাজ করেছেন পরিচালক নিজেই। কাহিনী থেকে পরিচালনা, পরিচালনা থেকে অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলীর বিপরীতে অভিনয় করেছেন পরমব্রত। এই ছবিতে মুখ্য চরিত্রের অভিনয় করতে দেখা যাবে শুভশ্রী গাঙ্গুলীকে এছাড়াও সোহম চক্রবর্তীকেও দেখা যাবে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে।

পারিবারিক আশা বজায় রেখে টিচার হওয়ার পরেও রান্না করতে ভালবাসা এমন একটি মেয়ের অস্তিত্ব খোঁজার চেষ্টা করবে এই সিনেমা। এই ছবিতে মুখ্য চরিত্রে অভিনেত্রী শুভশ্রীর নাম হয়েছে পৌলমী। পারিবারিক প্রতীক্ষার চাপে টিচার হওয়ার পরেও তা রান্নার প্রতি ভালোবাসা যেন একটুও কমেনি। পৌলমীর আসল ভালবাসা এখানে দেখানো হবে তেল, নুন, মসলা, হাতা, খুন্তি এই সমস্তকে ঘিরে। নিজের ভালোবাসার টানে কর্মজীবন সামলেও রান্নাঘরে ঢোকার পরে শাশুড়ি বলে ওঠে, “আজকালকার মেয়ে হলে এতকিছু একসঙ্গে কী করে যে পারো তুমি…” উত্তরে অল্প হেসে পৌলমী বলে, “রান্নাটা আমি ভালোবাসি মা”।

অন্যদিকে গল্পের মোড়ে সাথে সাথে পৌলমীর জীবনেও আসতে থাকে ওঠা পরা। স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কে ব্যাক্তিগত সম্পর্কের শুরু হয় টানাপোড়েন, আরো বিভিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে পৌলমীর মুখ থেকেই বলানো হবে, “মেয়েদের স্বাধীন হওয়া মানেই কি পুরুষদের মতো হওয়া?” এমনকি ট্রেলাদের শেষে আমাদের প্রচলিত “বাপের বাড়ি” শব্দবন্ধ নিয়েও আপত্তি তোলে পৌলমী। পৌলমীর সকলকে অনুরোধ করে বলে, “ওটা বাপের বাড়ি নয়, বাবা মায়ের বাড়ি”। সুতরাং ট্রেলার থেকেই স্পষ্ট যে প্রচলিত সামাজিক ধ্যানধারণারকে ছাপিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রশ্ন করার গল্প নিয়ে আসছে “বৌদি ক্যান্টিন”।

Back to top button