বাংলা সিরিয়াল

“অনুরাগের ছোঁয়া”য় একেবারে ধামাকাদার পর্ব চলছে! মিশকার সমস্ত ষড়যন্ত্র ফাঁস হলো লাবণ্যর সামনে, গুলি করে মেরে দিতে গেল লাবণ্য মিশকাকে

বর্তমান সময়ে স্টার জলসার একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো “অনুরাগের ছোঁয়া”। এই ধারাবাহিকে সূর্য ও দীপার জুটি বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে দর্শকমহলে। এছাড়া এই জুটির মাঝে ঢুকে পড়েছে মিশকা। এবার এই ত্রিকোণ প্রেম বেশ রসালো হয়ে উঠেছে। তবে মিশকা নেগেটিভ চরিত্র হিসেবে ঘটাচ্ছে একের পর এক ষড়যন্ত্র। কিন্তু কেউ তার সেসব কুকীর্তি ধরতে পারছে না। তবে এবার নতুন প্রোমো দেখে মনে হচ্ছে সমস্ত ষড়যন্ত্র এসে গিয়েছে লাবণ্যর চোখের সামনে।

সম্প্রতি ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে মিশকা ষড়যন্ত্র করে সূর্যর মনে দীপার প্রতি সন্দেহ তৈরি করে দিয়েছে। আর সেই সন্দেহের কারণ দীপার পাতানো দাদা কবির। সে এমন চালাকি করেছে যেন মনে হয় যে সূর্য কখনো বাবা হতে পারবেনা। এদিকে দীপা গর্ভবতী। আর এতেই ফাটল ধরেছে দীপা আর সূর্যর সংসারে। সূর্য দীপাকে এই নোংরা অপবাদ দিলে দীপা বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। কিন্তু সূর্যর মা লাবণ্য ক্রমাগত দ্বিপাকে বিশ্বাস করে সাপোর্ট করতে থাকছে। অন্যদিকে পুলিশ অফিসার দীপাকে খুঁজে না পেয়ে দীপার মৃত্যুর কারণ হিসেবে সূর্যকে গ্রেফতার করে।

তবে সম্প্রতি একটি প্রমো আমাদের সামনে এসেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে যে লাবণ্য মিশকার দিকে বন্দুক তাক করে দাঁড়িয়ে আছে। সূর্য আর দীপার সম্পর্কের ভাঙ্গন যে মিশকাই ধরিয়েছে তার সমস্ত সত্যি চলে এসেছে লাবণ্যর সামনে। তার কাছে এখন পুরোটাই স্পষ্ট যে তার ছেলে সূর্যকে ফাঁসিয়ে জেলে বন্দি করার পেছনেও ষড়যন্ত্র করেছিল মিশকা। কিন্তু এখন কথা হল লাবণ্যর কাছে কি এ বিষয়ে কোন প্রমাণ আছে?

আসলে লাবণ্য মিশকা গুন্ডাদের সাথে কথাবার্তা বলতে শুনে নিয়েছে। এমনকি সে মিশকার কললিস্টও চেক করেছে। সেখান থেকেই তার সন্দেহ আরো দৃঢ় হয়েছে। কিন্তু লাবণ্য যে সব কথা বলছে তার কোন সঠিক প্রমাণ তার কাছে নেই। এবার এটাই দেখার যে মিশকার বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ না থাকায় লাবণ্য এবার কি করে প্রমাণ করবে যে মিশকার ষড়যন্ত্র সবটা? তাহলে কি সে প্রমাণ ছাড়াই শুধু মাত্র সন্দেহের ওপর ভিত্তি করে মিষকাকে ধরিয়ে দিতে পারবে? দীপা আর সূর্য কে কি লাবন্য আবার এক করতে পারবে?

Back to top button