বাংলা সিরিয়াল

‘জি বাংলার ব্লকবাস্টার নায়িকারা জলসাতে এলেই ফ্লপ হয় আর চ্যানেলে ডিজাস্টার নিয়ে আসে! শ্রীকৃষ্ণ ভক্ত মিরা থেকে শুরু করে বৌমা এক ঘর সবেতেই এক ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি!’ জি এর তিয়াসা স্টার জলসায় এসেও কি আরও একটা ডিজাস্টার নিয়ে আসবে সন্ধিহান স্টার জলসার ফ্যানেরা

জনপ্রিয় ধারাবাহিকের নায়িকা মানে সবাই জানে সেই নায়িকা লাকি চার্ম। সে যে ধারাবাহিকি করবে সেই ধারাবাহিকই ব্লকবাস্টার হবে। কিন্তু সব ক্ষেত্রে এমনটা হয় না অনেক সময় দেখা যায় ব্লকবাস্টার ধারাবাহিকের নায়িকা অনেক কারণে পরবর্তীকালে ফ্লপ হয়ে যায়। যেমনটা সাম্প্রতিককালে হয়েছে। একজন স্টার জলসা ফ্যান দাবি করেছেন যে জি বাংলার ব্লকবাস্টার নায়িকাদের স্টার জলসায় নিয়ে আসা হয়েছে যতবারই, ততবারই স্টার জলসার সেই সব ধারাবাহিক সুপার ফ্লপ হয়েছে।

ঐ ভক্ত আরো লিখেছে,“ইতিহাস বলছে জি এর ব্লকবাস্টার দেওয়া নায়িকা গুলো কে ধরে এনে জলসা শুধু ফ্লপ ই খায়নি , বরং সেগুলো ডিজাস্টার দিয়েছে। সেটা সুদিনে আনুক বা দুর্দিনে ডিজাস্টার হওয়া টা কমন ফ্যাক্টর। সত্যি বলতে সিরিয়াল গুলো হয়তো অত টাও খারাপ হতো না কিন্তু trp একদমই পেতো না, trp পাওয়ার সব মেটেরিয়াল থাকা সত্তেও কোনো এক অজানা কারনে সব ডিজাস্টার।”

এরপর ওই ভক্ত আবার জি বাংলা থেকে স্টার জলসায় ধরে ধরে আনা সুপারস্টার নায়িকাদের উল্লেখ করেছেন যারা স্টার জলসায় সিরিয়াল করতে গিয়ে পুরো ফ্লপ হয়েছে। ঐ ভক্তের কথায়,

১. বৌমা একঘর: জী তে সুপারহিট অপরাজিতা অপুর পর সুস্মিতার জলসায় এসে এক ডিজাস্টার , সিরিয়াল টা হয়তো 100 এপিসোড এর মুখ দেখতে পাবে না , খুব তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যাচ্ছে।

২. শ্রী কৃষ্ণ ভক্ত মীরা: জী তে পরপর দুটো ব্লকবাস্টার দেয়ার পর দেবাদৃতার একটা ডিজাস্টার, সিরিয়াল টা রাত 9 টার স্লট কে পুরো ডেড স্লট করে এনেছিল , প্রাইম টাইমে 3+ দিত সেখানে দুপুরের সিরিয়াল গুলো পর্যন্ত 3+ দিত তখন । এমনকি রাত 11 টাই ডাবিং সিরিয়ালের সাথেও স্লট পায়নি।

৩. দেবীপক্ষ: জী তে রাশি র মত একটা ব্লকবাস্টার দেওয়ার পর সেম প্রোডাকশন হাউসে জলসায় এলো , বধুবরণ এর মত একটা স্লট এ এসেও সেই স্লট কে পুরো ডেড স্লট করে ছাড়লো , তিন মাসের মধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয় , কিন্তু সত্যি বলতে সিরিয়াল টা এতোটাও বাজে হতো না যত টা বাজে trp পেত ।

৪. জানি দেখা হবে: জী বাংলার ব্লকবাস্টার অগ্নিপরীক্ষা র এক নায়িকা রূপসা এলো জলসায় , সিরিয়াল টা পুনর্জন্মএর কোনসেপ্টের ছিল যেটা একেবারেই নতুন, আর টাইম টাও ঠিক পায়নি ।একেবারে লো trp র জন্য 139 এপিসোডের মধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়। ”

এখানেই শেষ নয় শোনা যাচ্ছে জি বাংলার কৃষ্ণকলি ধারাবাহিক খ্যাত তিয়াসা স্টার জলসায় আসবে, সেই নিয়ে ওই ভক্তের চিন্তা যে তিয়াসা না আবার ফ্লপ হয়ে যায়।

Back to top button